আওয়ামীলীগ এবং বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের মধ্যে হাতাহাতি

অক্টোবর ৩১, ২০১৮ ১:২০ দুপুর

নিউজ ডেক্সঃ

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার আপিল বিভাগের রায়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার সাজা বৃদ্ধির প্রতিবাদে আদালত বর্জন কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে বিএনপিপন্থী ও আওয়ামী লীগ আইনজীবীরা হাতাহাতিতে জড়িয়েছেন। রায়ের পক্ষে-বিপক্ষে মিছিল করার সময় দুই পক্ষের আইনজীবীরা মুখোমুখি হলে ধাক্কাধাক্কি ও হাতাহাতি হয়।

বুধবার সকাল নয়টার দিকে পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী আদালত বর্জন করে সুপ্রিম কোর্ট ভবনের দ্বিতীয় তলা থেকে আদালতে যাওয়ার প্রবেশপথে তালা দেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা। তারা এ সময় আদালত চত্বরে মিছিল বের করেন।

এর কিছু সময় পরেই আদালত বর্জনের বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে সরকারপন্থী আইনজীবীরা মিছিল বের করেন। এ নিয়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে দুটো মিছিল মুখোমুখি হলে তাদের মধ্যে ধাক্কাধাক্কি ও হাতাহাতি হয়।

বিক্ষোভ চলাকালে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি বিএনপি নেতা জয়নুল আবেদীন দাবি করেন, সাধারণ আইনজীবীরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে আদালত বর্জন কর্মসূচিতে যোগ দিয়েছেন। তারাই গেইটে তালা দিয়েছেন। এ সময় শত শত বিএনপিপন্থী আইনজীবী সরকারবিরোধী স্লোগান দিতে থাকেন।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গতকাল মঙ্গলবার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বিচারিক আদালতের দেওয়া পাঁচ বছরের কারাদণ্ড বাড়িয়ে ১০ বছর করেন হাইকোর্ট বিভাগ।

হাইকোর্টের রায় ঘোষণার পর দুপুরে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি জয়নুল আবেদীন বুধবার সকাল নয়টা থেকে দুপুর একটা পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগ বর্জনের ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, বেআইনিভাবে বিএনপি চেয়ারপারসনের সাজা বাড়ানোর প্রতিবাদে বুধবার সকাল ৯টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত তারা সর্বোচ্চ আদালতের দুই বিভাগে (হাইকোর্ট ও আপিল) কর্মবিরতি পালন করবেন।

এর আগের দিন সোমবার জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ চারজনকে সাত বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড, ১০ লাখ টাকা করে জরিমানা করেন পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারের অস্থায়ী আদালতের বিশেষ জজ ড. আখতারুজ্জামান।