কেজিতে ৩-৪ টাকা বেড়েছে সব ধরনের চালের দাম

জানুয়ারি ১১, ২০১৯ ২:৫০ দুপুর

নিউজ ডেক্সঃ

রাজধানীসহ সারা দেশে এক সপ্তাহের ব্যবধানে কেজি প্রতি ৩ থেকে ৪ টাকা বেড়েছে সব ধরনের চালের দাম। পাইকারি বিক্রেতারা দুষছেন মিল মালিক আর খুচরা ব্যবসায়ীদের। বাজার নিয়ন্ত্রণে সবস্তরে মনিটরিংয়ের দাবি ক্রেতাদের।

অগ্রহায়ণে ঘরে ঘরে উঠেছে নতুন ধান। বাজারে চালের কমতি থাকার কোনো কারণ নেই। কিন্তু দাম কমার বদলে গেল এক সপ্তাহ ধরে বাজারে প্রায় সব ধরনের চালের দামই বাড়ছে। রাজধানীর পাইকারি আড়ত ঘুরে দেখা যায়, মিনিকেট প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে, ৫১-৫২ টাকায়, আটাশ ৪০-৪২ টাকা, গুটিস্বর্ণা ৩৪-৩৫ টাকা কেজি দরে।

পাইকারি বিক্রেতারা বলেন, তারা ইচ্ছা করেই বাজারটাকে এমন করছে। নির্বাচনে ব্যস্ততার একতা সুযোগ নিচ্ছে তারা।

খুচরা বাজারে গিয়ে দেখা গেল, পাইকারির চেয়ে ৩ থেকে ৪ টাকা বাড়তি দামে বিক্রি হচ্ছে প্রায় সব ধরনের চাল। মিনিকেট প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে, ৫৫-৫৬ টাকায়, আটাশ ৪০-৪৪ টাকা, গুটিস্বর্ণা ৩৭-৩৮ টাকায়, পাইজাম বিক্রি হচ্ছে ৩৮-৪০ টাকা কেজি দরে। খুচরা বিক্রেতারা বলছেন, সীমিত লাভেই ক্রেতাদের কাছে চাল বিক্রি করছেন তারা।

খুচরা বিক্রেতারা বলেন, ‘এটা সিন্ডিকেটের কাজ। নতুন সিজনে দাম হওয়ার কথা কম, কিন্তু হচ্ছে বেশি।’

এদিকে, হঠাৎ করে দাম বাড়ায় অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন, ক্রেতারা।

খুচরা বিক্রেতা একজন বলেন, এখানে আমরা কার কাছে বলবো। ধানের দাম কম, কিন্তু চালের দাম বেশি।’

একে অপরের উপর দোষ না চাপিয়ে বাজার নিয়ন্ত্রণে প্রতিটি স্তরেই নজরদারি বাড়ানোর দাবি ক্রেতাদের।