সাকিবের অন্য রকম অর্ধশতক উদযাপন

জানুয়ারি ১৯, ২০১৯ ৯:৪৫ সকাল

স্পোর্টস ডেক্সঃ

আইসিসি টি-টোয়ন্টিতে র্যাং কিংয়ে সেরা অলরাউন্ডারের তালিকায় রয়েছেন দ্বিতীয়তে। ১নম্বর পজিশনটা ধরে রেখেছিলেন বহুদিন। বিশ্বজুড়ে ফ্রাঞ্চাইজি লিগ গুলোতেও তার চাহিদা আকাশচুম্বী।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) অটোমেটিক চয়েজ হয়ে খেলছেন ২০১১ সাল থেকে। আইপিএল ছাড়াও ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (সিপিএল), পাকিস্তান সুপার লিগসহ (পিএসএল) খেলেছেন বিভিন্ন দেশের ফ্রাঞ্চাইজি হয়ে।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) সর্বোচ্চ দুইবার হয়েছেন টুর্নামেন্ট সেরা। ব্যাটে বলে পারফর্ম করে ২০১২ সালে প্রথম আসরে খুলনার হয়ে ও ২০১৩ সালে ঢাকার হয়ে এই খেতাব জেতেন সাকিব আল হাসান। টেস্ট শতক, দ্বিশতক কিংবা ওয়ানডেতে শতক হাঁকিয়েও কখনও উদযাপনে বাড়াবাড়ি দেখা যায় সাকিবের মাঝে।

সেই সাকিবই কিনা গতকাল শুক্রবার দিনের প্রথম ম্যাচে সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে অর্ধশতক হাঁকিয়ে লুটিতে পড়লেন মাটিতে। সৃষ্টিকর্তার কাছে কৃতজ্ঞতা জানান সিজদা দেন ঢাকা ডায়নামাইটেসর অধিনায়ক। গ্রুপ পর্বের সাধারণ একটি ম্যাচে অর্ধশতক হাঁকিয়ে কেনও সাকিবের এই উদযাপন? দলও ট রয়েছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে।

উত্তরটা জানা গেলো দলের ম্যানেজার আজম ইকবালের কাছে। সেই ২০১৩ সালে দ্বিতীয় আসরে অর্ধশতক হাঁকিয়েছিলেন তিনি। মাঝে তিনটি আসর ও ৬ বছর নেই কোনও অর্ধশতক। বিপিএলে দীর্ঘদিন পর দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে ফিফটির খরা কাটিয়ে উঠতেই নাকি সৃষ্টিকর্তার কাছে কৃতজ্ঞতা।

দেশ-বিদেশ মিলিয়ে ২৮৬টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে ১৭টি ফিফটি করেছেন বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টোয়ন্টি অধিনায়ক। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতেও রয়েছে ৮টি অর্ধশতক।

সেই হিসেবে বিপিএলে তিন আসর ফিফটি খরা একটুতো পোড়াবে সাকিবকে তা অনুমেয়। আপাতত সেই খরা কাটিয়ে দলকে জয় এনে দিয়েছেন বামহাতি এই ব্যাটসম্যান। তার দলও রয়েছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে।