কণ্ঠশিল্পী ন্যান্সিসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন মামলা

সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৮ ৮:০০ সকাল

বিনোদন ডেক্সঃ

কণ্ঠশিল্পী ন্যান্সি, তার স্বামী নাজিমুজ্জামান ও ছোট ভাই শাহরিয়ার আমান সানির বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেছেন সানির স্ত্রী সামিউন্নাহার শানু।

গত বৃহস্পতিবার রাতে নেত্রকোনা মডেল থানায় এ মামলা করেন সানির স্ত্রী। এ মামলায় শুক্রবার সন্ধ্যায় নেত্রকোনা সদর থানার সাতপাই এলাকায় সানির বাবার বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

নেত্রকোনা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। মামলার অপর দুই আসামিকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।

২০১৫ সালের শেষ দিকে সানি ও শানুর বিয়ে হয়। এর আগে ওই বছরের প্রথম দিকে নেত্রকোনা সরকারি কলেজে শানু পড়াকালে তার সঙ্গে প্রেম হয় সানির। শানুর বাবার বাড়ি শহরের সাতপাই নদের পাড় চক্ষু হাসপাতাল রোড এলাকায়। শানু ও সানির চার মাসের একটি মেয়ে রয়েছে।

গত ২৭ আগস্ট সানি তার স্ত্রী শানুকে তালাক দেন বলে গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে।

শানুর মামলা থেকে জানা যায়, বিয়ের কয়েক মাস পর থেকে সানি স্ত্রী শানুকে তার বাবার বাড়ি থেকে টাকা ও আসবাবপত্র এনে দিতে চাপ দেন। এতে শানু অপারগতা প্রকাশ করলে সানি তার ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালান। সম্প্রতি তার এই কাজে বড় বোন ন্যান্‌সি ও তার স্বামী জায়েদ সাহায্য করেন। তারা সানিকে উসকানি দেওয়া ছাড়াও শানুকে বিভিন্ন সময়ে মানসিক নির্যাতন চালাতেন বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়।

মামলায় আরও উল্লেখ করা হয়, গত ২৬ আগস্ট রাত নয়টার দিকে সানি শানুকে তার বাবার বাড়ি থেকে পাঁচ লাখ টাকা এনে দিতে চাপ দেন। টাকা না দিলে তাকে তালাক দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে সানি শানুকে মারধর করে শ্বাসরোধে হত্যার চেষ্টা চালান। এ সময় শানুর চিৎকারে লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে। খবর পেয়ে ওই দিন রাতে শানুর বাবার বাড়ির লোকজন তাকে নিয়ে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

গত বৃহস্পতিবার (৬ সেপ্টেম্বর) রাতে শানু বাদী হয়ে নেত্রকোনা মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।