চিহ্নিত ৩২ মাদক বিক্রেতার তালিকা প্রকাশ করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ

সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৮ ৪:৩৫ দুপুর

নিউজ ডেক্সঃ

নারায়ণগঞ্জে চিহ্নিত ৩২ মাদক বিক্রেতার তালিকা প্রকাশ করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ। এসব মাদক বিক্রেতাকে ধরিয়ে দিতে সহযোগীতাকারীদের পুরস্কার দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান।

সোমবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ চাষাড়া শহীদ মিনারে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানা ও ফতুল্লা মডেল থানা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির আয়োজনে মাদক সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ বিরোধে কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান নারায়ণগঞ্জ সদর থানা ও ফতুল্লা মডেল থানা এলাকার ১৬ জন করে ৩২শীর্ষ মাদক বিক্রেতার তালিকা প্রকাশ করেন।

এসব মাদক বিক্রেতাকে ধরিয়ে দিতে সহযোগীতাকারীদের নাম পরিচয় গোপন রেখে আর্থিক পুরস্কার দেয়ার ঘোষণা দেন তিনি । এর মধ্যে ১৫ জনকে ধরিয়ে দিতে পারলে ১০ হাজার টাকা করেও বাকীদের ধরিয়ে দিতে সহযোগীতা করলে ৫ হাজার টাকা করে পুরস্কার দেয়ার ঘোষণা দেন তিনি।

পুলিশ সুপারের প্রকাশিত তালিকায় সদর থানা এলাকার তালিকাভুক্ত মাদক বিক্রেতারা হচ্ছে, নারায়ণগঞ্জ সদর থানার বাবুরাইল এলাকার কালাচানের ছেলে বাদশা, সদর থানার পাইকপাড়া এলাকার মুরাদ মিয়ার ছেলে শহিদুল ইসলাম রুমান, দেওভোগ পাক্কারোড এলাকার সাদেক আলীর ছেলে মকবুল হোসেন, সৈয়দপুর শামসুউদ্দীনের ছেলে কালা মিয়া ওরফে কালাই, বেপারীপাড়া এলাকার মুনু মিয়ার ছেলে রানা, দক্ষিণ রেলিবাগান এলাকার শহিদুল ইসলামের ছেলে শেখ ফরিদ, থানাপুকুর পাড় রয়েল ট্যাংক রোড রেলি বাগান এলাকার অর্জূন চন্দ্র পালের ছেলে কার্তিক চন্দ্র পাল, দেওভাগ আখড়া এলাকার কালাচান মিয়ার ছেলে দিপু, শহরের ২নং রেলগেট এলাকার হারুণ উর রশিদের ছেলে সোয়াদ হোসেন বান্টি, পাইকপাড়া এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে মহিউদ্দীন, দেওভোগ পানির ট্যাংকি এলাকার এনায়েত আলীর ছেলে আওলাদ, পাইকপাড়া এলাকার সালাউদ্দীনের ছেলে রাজু আহমেদ, সৈয়দপুর আল আমিনগর এলাকার খালেক বেপারীর ছেলে যাবেদ বেপারী, দক্ষিণ রেলিবাগান এলাকার শহিদুল ইসলামের ছেলে বাদল, রেলিবাগান এলাকার ওয়াজউদ্দীনের ছেলে সালাউদ্দীন ও কুমুদিনী বাগান এলাকার বাবুল মিয়ার ছেলে মাসুদ ওরফে সিওডি মাসুদ।

আর ফতুল্ল মডেল থানার তালিকাভুক্ত মাদক বিক্রেতাদের মধ্যে দাপা মসজিদ এলাকার মতবল কাজীর ছেলে রিপন কাজী, মাসদাইর গুদারাঘাট এলাকার রফিকুল ইসলাম ভেন্ডারের ছেলে নাদিম, দাপা ইদ্রাকপুর এলাকার হাবিবুর রহমানের ছেলে মন্টু মিয়া, দাপা ইদ্রাকপুর রেলস্টেশন এলাকার শাহআলমের স্ত্রী পারভীন ওরফে নাইট পারভীন, দাপা খোচপাড়া এলাকার টিকি মরা লিটন, রামনগর এলাকার ছাবেদ আলীর ছেলে রহিম বাদশা, মাসদাইর এলাকার মজিবুর রহমানের ছেলে হিটলার, মাসদাইর গুদারাঘাট এলাকার গোলাম মোস্তফা রনির স্ত্রী পারুল, দাপা ইদ্রাকপুর পাইলট স্কুল এলাকার সাইফুল ইসলামের ছেলে লিটন ওরফে সাইকেল লিটন, দাপা ইদ্রাকপুর এলাকার আব্দুর রশিদ মিস্ত্রির ছেলে মানিক রতন, মাসদাইর এলাকার ফজলুল হকের ছেলে হান্ড্রেট নাসির, ফাজিলপুর এলাকার শামসুল হকের ছেলে সানি, দাপা মসজিদ এলাকার মতলব কাজীর ছেলে সেন্টু কাজী, একই এলাকার আলীনুর বেপারীর ছেলে উজ্জল, দাপাইদ্রাকপুর বেপারী পাড়া এলাকার সেকান্দারের ছেলে লতিফ ও দাপা ইদ্রাকপুর বেপারী পাড়া এলাকার সামসুল হকের ছেলে লিপু ওরফে ডাকাত লিপু রয়েছেন।

এসময় বক্তব্য রাখেন, নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইমরান মেহেদী সিদ্দিকী, নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি ডা. শাহনেওয়াজ চৌধুরী, মহানগর কমিটির সভাপতি এম সোলায়মান, সেক্রেটারি শাহনিজাম, সদর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম, ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহ মোহাম্মদ মঞ্জুর কাদের।

এসময় কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির নেতৃবৃন্দসহ অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।