মন্ত্রণালয় ও দায়িত্বশীল মন্ত্রীদের তিরষ্কার করেছেন প্রধানমন্ত্রী

September 18, 2018 8:57 am

নিউজ ডেক্সঃ

প্রমত্তা পদ্মা নদীর করাল গ্রাসে আক্রান্ত শরীয়তপুর জেলার নড়িয়াবাসীর পাশে না দাঁড়ানোয় সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও দায়িত্বশীল মন্ত্রীদের তিরষ্কার করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার (১৭ সেপ্টেম্বর) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিপরিষদ সভায় সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী ছাড়াও সরকারের দায়িত্বশীল সিনিয়র মন্ত্রীদের ভর্ৎসনা করেন প্রধানমন্ত্রী। বৈঠকে অংশ নেওয়া একাধিক মন্ত্রী গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বৈঠকে শেখ হাসিনা বলেন, পদ্মা নদীর এই ভয়াবহ ভাঙনের কবলে পড়ে হাজার হাজার মানুষ আজ অসহায় হয়ে পড়েছেন। সর্বস্ব হারিয়েছেন। এটা প্রাকৃতিক দুর্যোগ। তাৎক্ষণিক হয়তো মানুষের এক্ষেত্রে তেমন কিছুই করার নেই। কিন্তু সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় বা মন্ত্রী সময়মতো সেখানে যাননি। কীভাবে পরিস্থিতি মোকাবেলা করা যায়, সে বিষয়ে পদক্ষেপ নেননি।

অত্যন্ত ক্ষুব্ধ কণ্ঠে প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রীদের উদ্দেশ্যে প্রশ্ন করেন, আপনারা জনগণের দ্বারা নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি। অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানো দরকার ছিল আপনাদের। কেন যাননি, তা আমাকে জানতে হবে। সব কিছু কি আমাকে দেখতে হবে? আমাকেই যেতে হবে সবখানে? তাহলে আপনারা কী করবেন?

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সর্বস্ব হারানো মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়ালে, তারা মানসিকভাবে শক্তি পেতো। যখন এটা হলো না তখন তা দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেন শেখ হাসিনা।

এ সময় নড়িয়ায় কোনো প্রকল্প নেই জানানো হলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রকল্প তো মানুষের জন্য। যেখানে মানুষের ঘরবাড়ি ধ্বংস হচ্ছে, আস্ত আস্ত দালানকোঠা, বাজার, নগর, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ অনেক স্থাপনা নদীর বুকে হারিয়ে যাচ্ছে, মানুষ বিলাপ করছে, মানুষের মাথা গোঁজার ঠাঁই নেই, মানুষের খাবার জুটছে না, চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান ভেসে যাচ্ছে; তখন প্রকল্প তো পরের কথা। আগে তো অসহায় মানুষের কাছে ছুটে যেতে হবে। তাদের বুকে জড়িয়ে ধরতে হবে। আশা দেখাতে হবে। পাশে দাড়াঁতে হবে।

ভাঙন ঠেকাতে শেখ হাসিনা কার্যকর ভূমিকা নিতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দিয়েছেন বলেও জানিয়েছে দায়িত্বশীল সূত্র।

Please follow and like us: