দুই বান টিনের দাম ১৪ লাখ টাকা?

সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯ ৬:৩২ দুপুর

অনলাইন ডেক্স:

দুর্নীতির পাগলা ঘোড়া ক্ষেপেছে, আর তাকে থামানো যাবে কিনা তা ভবিষ্যতের উপর ছেড়ে দিতে হবে। তা না হলে কেন এমন? দেশে দুর্নীতির বিচার করছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তবে এসব কিছুকে যেন বৃদ্ধা আঙুলি দেখিয়ে দুর্নীতির গোড়া চলছে সুনামীর গতিতে। পাঠক, বালিশ-পর্দা কাণ্ডের পর এবার যুক্ত হলো ‘টিন’।

এক টুকরো টিন কিনতে খরচ হয়েছে এক লাখ টাকা! এই দাম বর্তমান বাজার মূল্যের তুলনায় ১০০ গুণেরও বেশি। বিশ্বে হয়তো এই টিনই সবচেয়ে বেশি দামে কেনা হয়েছে।

খাগড়াছড়ির ৬-আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) ঘর মেরামতের কাজে এই টিন কেনা হয়।

ওই মেরামতকাজে মাত্র দুই বান টিনের দাম দেখানো হয়েছে ১৪ লাখ টাকা। দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড’র এক প্রতিবেদনে এমন খবর প্রকাশ করা হয়।

মেরামত কাজ শুরু করার মাত্র ২০ দিনের মধ্যেই বাজেটের ৭১ লাখ টাকা তুলে নেয়া হয়। অথচ মেরামত কমিটির সদস্য সচিবের দেয়া ‘নোট অব ডিসেন্ট’ থেকে জানা যায়, চার মাসে মাত্র ১৫ ভাগ কাজ হয়েছে। প্রতিবেদনে প্রকল্পের কাজে আরো বেশকিছু অনিয়মের তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।

এসব সংস্কারসহ অন্য দুটি কাজের দায়িত্বে ছিল মেসার্স তাপস এন্টারপ্রাইজ ও মেসার্স মিশু এন্টারপ্রাইজ। মিশু এন্টারপ্রাইজের কর্ণধার মোহাম্মদ জসিম। অন্যদিকে তাপস এন্টারপ্রাইজ নামের প্রতিষ্ঠানটিও চলে তার কর্তৃত্বেই।

প্রকল্পের কাজে এসব অনিয়মের বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হলে জসিম বলেন, ‘আমাকে যেভাবে কাজ করতে বলেছেন, আমি সেভাবেই করেছি। এর বেশি কিছু বলতে পারব না।’