হামলার ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন স্কুল শিক্ষিকা

অক্টোবর ২৭, ২০১৯ ৯:৩৯ সকাল

নিউজ ডেক্সঃ

জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মোংলার স্কুল শিক্ষিকা প্রণতি মল্লিকের ওপর হামলা মামলার ২ আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এতে স্বস্তি ফিরে এসেছে নির্যাতিতার পরিবারে।

এদিকে প্রণতি মল্লিকের শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে বলে জানান খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক।

হাসপাতালের বারান্দায় শুয়ে হামলার ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন মংলার স্কুল শিক্ষিকা প্রণতি মল্লিক।

তিনি জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ছাড়াও বিভিন্ন সময় কুপ্রস্তাব দিতো প্রতিবেশী তপন হালদার। রাজি না হওয়ায় ২০১৮ সালের ৭ নভেম্বর পাশবিক নির্যাতন করা হয় তার ওপর। বছর গড়াতে না গড়াতে আবারও প্রকাশ্য হামলার শিকার হন তিনি।

প্রণতি মল্লিক বলেন, বাড়িতে শুধু আমার মা ছিলো। তারা আমার মাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়েছে। আমি যখন মাকে উঠাতে গেলাম তখনই তারা আমার উপর ঝাঁপিয়ে পরে।

প্রণতি মল্লিকের শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. এস এম মনোয়ারুল ইসলাম। তিনি বলেন, তার অবস্থা এখন আগের থেকে ভালো। সবকিছুই নরমাল হয়ে আসছে।

হামলার ঘটনায় এরই মধ্যে ২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বাগেরহাট মংলা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, দুজনকে ইতিমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকী আসামীদের জন্য অভিযান চলছে।

গত ১৫ অক্টোবর জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রকাশ্যে হামলার শিকার হন স্কুল শিক্ষিকা প্রণতি মল্লিক।