বঙ্গবন্ধু বিপিএলের পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে চট্টগ্রাম

January 7, 2020 11:19 pm

স্পোর্টস ডেক্সঃ

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে রাজশাহী রয়্যালসকে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার করলো চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। ইমরুল-সিমন্সের অর্ধশতকে ৯ বল হাতে রেখে রাজশাহীকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে বন্দর নগরীর দল।

মিরপুর হোম অব ক্রিকেটে মঙ্গলবার দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে রয়্যালসের দেয়া ১৬৭ রানের টার্গেটে ১৮.৩ ওভারে জয় তুলে নেয় চট্টগ্রাম।

এদিন ইনজুরি কাটিয়ে মাঠে ফেরেন চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের নিয়মিত অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ও রাজশাহীর অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল। ম্যাচে টস জিতে প্রতিপক্ষকে প্রথমে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় বন্দর নগরীর দলটি। উদ্বোধনী উইকেটে মাঠে নামেন লিটন দাস ও আফিফ হোসেন।

দলীয় ১৬ রানে আফিফ সাজঘরে ফিরলেও, অর্ধশতক তুলে নেন আরেক ওপেনার লিটন দাস। এরই মাঝে ব্যক্তিগত ১৮ রানে আউট হন ইরফান শুক্কুর। এরপর ৪৫ বলে ৫৬ রানে করে লিটন দাস আউট হলে দলীয় সংগ্রহ দাঁড়ায় ৩ উইকেটে ৯৪ রান।

এরপর রাসেল ২০, বোপারা ৪ ও কাপালি ১ রান করে আউট হলে, রানের গতি কমে আসে রাজশাহীর। শেষ দিকে শোয়েব মালিকের ২৮ ও ফরহাদ রেজার ২১ রানে ভর করে ৮ উইকেটে ১৬৬ রান সংগ্রহ করে রাজশাহী রয়্যালস।

জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই তাণ্ডব শুরু করে দুই ক্যারিবীয়ান ওপেনার লেন্ডল সিমন্স ও ক্রিস গেইল। ১০ বলে ২৩ রান করে ইনিংসের পঞ্চম ওভারে আউট হন গেইল। এরপর সিমন্স ও ইমরুল জুটিতে জয়ের ভিত পায় বন্দর নগরীর দল।

দলীয় ১১২ রানে ব্যক্তিগত ৫১ রানে সিমন্স আউট হওয়ার পর মাঠে নামেন অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ। তবে বেশিক্ষণ টিকে থাকতে পারেননি তিনি। মাত্র ১০ রান করে আউট হন দলের অধিনায়ক।

এরপর দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান ইমরুলের ৬৭ ও ওয়ালটনের ১৪ রানে ভর করে, ১৮.৩ ওভারে জয় তুলে নেয় চট্টগ্রাম। এই জয়ে ১১ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে ওঠে চ্যালেঞ্জার্স। সমান ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে আছে রাজশাহী রয়্যালস।

এদিকে, ঢাকার তৃতীয় পর্বের প্রথম ম্যাচে সিলেট থান্ডারকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স। সিলেটের দেয়া ১৪২ রানের টার্গেটে ১৯.১ ওভারে জয় তুলে নেয় কুমিল্লা। এতে আসরে নিজেদের ১২ ম্যাচের ১১টিতেই হারের তিক্ত স্বাদ পেলো সিলেট। সেই সঙ্গে শেষ হলো থান্ডারদের বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ।

বিপরীতে ১০ ম্যাচে ৫ জয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে প্লে-অফের আশা বাঁচিয়ে রাখলো কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স।

Please follow and like us: