ইরানের ড্রোন হামলার আতঙ্কে ভুগছে যুক্তরাষ্ট্র

January 9, 2020 10:41 am

আন্তর্জাতিক ডেক্সঃ

ইরানের কুদস ফোর্সের প্রধান জেনারেল কাশেম সোলাইমানিকে হত্যার জবাবে বুধবার ইরাকে অবস্থিত দু’টি মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে ব্যালেস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইরান। এবার ইরানের ড্রোন হামলার আতঙ্কে ভুগছে যুক্তরাষ্ট্র। মধ্যপ্রাচ্যজুড়ে মার্কিন সামরিক স্থাপনাগুলোতে হামলা চালানোর লক্ষ্যে খোলামেলাভাবেই ব্যাপক প্রস্তুতি নিচ্ছে ইরান।

ইরান মার্কিন সামরিক স্থাপনাগুলোতে ড্রোন হামলা চালানোর লক্ষ্যে সামরিক সাজ-সরঞ্জাম মোতায়েন করছে। মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্ভাব্য ড্রোন হামলা প্রতিরোধে সেনাদের সর্বোচ্চ সতর্ক থাকতে বলার পাশাপাশি সতর্ক করে দিয়েছে আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ও যুদ্ধবিমানগুলোও। ইরানি কোনো ড্রোন দেখলেই যেন সেটা গুলি করে ভূপাতিত করা হয়, এমন নির্দেশও দেয়া হয়েছে সেনাদের।

মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এসপার বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ইরানের সঙ্গে কোনো প্রকার যুদ্ধে শুরু করতে চায় না। তবে একবার যুদ্ধ শুরু হলে তা শেষ করার জন্য যুক্তরাষ্ট্র প্রস্তুত রয়েছে। তিনি আরও বলেন, ‘আমরা ইরানের সঙ্গে যুদ্ধ শুরুর চিন্তাভাবনা করছি না, তবে যুদ্ধ শুরু হলে সেটা শেষ করার জন্য আমরা প্রস্তুত আছি। ইরাকি পার্লামেন্টে বিদেশি সেনা প্রত্যাহারের বিষয়ে একটি প্রস্তাব পাস করা হয়ে থাকলেও যুক্তরাষ্ট্র ইরাক থেকে সেনা প্রত্যাহারের কোনো চিন্তা করছে না।

কুদস ফোর্সের প্রধান ইরানি জেনারেল কাশেম সোলাইমানিকে হত্যার বৈধতা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, একজন সন্ত্রাসী নেতা অপর এক সন্ত্রাসী নেতার সঙ্গে সাক্ষাতে গিয়েছিল এবং মার্কিন কূটনীতিক, সেনা ও স্থাপনার বিরুদ্ধে তারা হামলার ষড়যন্ত্র করছিল। আমি মনে করি, আমরা যুদ্ধক্ষেত্র থেকে এদেরকে একেবারে সরিয়ে দিয়ে সঠিক সিদ্ধান্তই নিয়েছি।’

Please follow and like us: