সুষ্ঠ নির্বাচন নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন ইসলামী আন্দোলনের মেয়র প্রার্থী

জানুয়ারি ১০, ২০২০ ১২:২৪ দুপুর

নিউজ ডেক্সঃ

আসন্ন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচন নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে বলে জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত মেয়র প্রার্থী শেখ মো. ফজলে বারী মাসউদ।

শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত জাতীয় স্থানীয় সরকার ইনস্টিটিউট (এনআইএলজি) ভবনে উত্তর সিটির মেয়র প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের বিষয়ে আমাদের যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। তবে এর দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের। জাতীয় নির্বাচন যেভাবে করেছে এবং তাতে কমিশন যেভাবে কালিমাযুক্ত হয়েছে, আগামী নির্বাচন স্বচ্ছ ও অবাধ করার মাধ্যমে কমিশন সে কালিমা মুছতে পারে।

শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকবেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, নির্বাচন নিয়ে আগ্রহ নেই সাধারণ মানুষের মধ্যে। তবুও আমরা শেষ পর্যন্ত থাকব। আমরা নির্বাচন ছেড়ে দিলে নির্বাচন উন্মুক্ত হয়ে যাবে। উন্মুক্ত হয়ে গেলে জঞ্জাল বৃদ্ধি পাবে। আমরা তা হতে দেব না।

ইভিএমে ভোটের বিষয়ে তিনি বলেন, স্বচ্ছ ব্যালট বাক্সের মাধ্যমে যতটা অবাধ নিরপেক্ষ ত্রুটিমুক্ত নির্বাচন করা যায়, ইভিএমে তার চেয়ে অনেক বেশি কারচুপি করার সুযোগ রয়েছে। ইভিএমের মাধ্যমে তারা আরো বেশি কারচুপি করবে বলে আমাদের সন্দেহ।

আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলাম আতিকের পক্ষে তার সহযোগী তৌফিক জাহিদুর রহমান বলেন, আজ আমাদের নির্বাচনী প্রচারণা শুরু হতে চলেছে। যেহেতু তিনি ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী, তাই আমাদের নির্বাচনী আচরণবিধি খুব কঠোরভাবে মেনে চলতে হবে।

বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী তাবিথ আওয়ালের পক্ষে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, আমরা আজ প্রতীক বরাদ্দ পেলাম। আজ উত্তরা থেকে আমাদের নির্বাচনী প্রচারণা শুরু হবে। আশা করি, উৎসবমুখর পরিবেশেই ভোট হবে।

পিডিপির মেয়র প্রার্থী শাহীন খান বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু হবে কি না, তা নিয়ে আশঙ্কা করছি। তবে নির্বাচন উৎসবমুখর হবে এটাই চাই।

নির্বাচন কমিশনের তফসিল অনুযায়ী ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন ছিল ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত। ১০ জানুয়ারি প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ, আর ভোটগ্রহণ হবে আগামী ৩০ জানুয়ারি।