স্প্যানিশ সুপার কাপের ফাইনাল খেলা হলো না বার্সার

জানুয়ারি ১০, ২০২০ ১:৪৪ দুপুর

স্পোর্টস ডেক্সঃ

বছরের প্রথম এল ক্লাসিকোর মঞ্চ ছিল প্রস্তুত। আগেই ফাইনালে পা রেখেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। আতলেতিকো মাদ্রিদকে হারাতে পারলেই স্প্যানিশ সুপার কাপে দেখা মিলত বিশ্বের সেরা দুই ক্লাবের দ্বৈরথ। কিন্তু হলো না। পারল না বার্সেলোনা।

বৃহস্পতিবার রাতে সৌদি আরবের কিং আব্দুল্লাহ স্পোর্টস সিটি স্টেডিয়ামে কাতালান ক্লাবটিকে চমকে দিল অ্যাতলেটিকো। সেমি-ফাইনালে ৩-২ গোলে জিতেছে তারা।

ম্যাচে বার্সার হয়ে গোল দুটি করেন লিওনেল মেসি ও অ্যান্তোনিও গ্রিজম্যান। অ্যাতলেটিকোর তিন গোলদাতা- কোকে, মোরাতা ও অ্যাঞ্জেল কোররেয়া।

উত্তেজনা ছড়ানো ম্যাচে শুরুতেই পিছিয়ে পড়ে বার্সেলোনা। ৪৬ মিনিটে কোকোর গোলে এগিয়ে যায় অ্যাতলেটিকো। তবে মিনিট পাঁচেকের মধ্যেই সমতা ফেরান লিওনেল মেসি। তারপর গ্রিজমানের গোল স্বস্তি নিয়ে আসে কাতালান শিবিরে।

তবে রাতটা আসলে বার্সার ছিল না। এরপরই ফিরে আসে আতলেতিকো। পাঁচ মিনিটের ব্যবধানে দুটি গোলে ফাইনালে জায়গা করে নেয় তারা।

খেলার দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই লিড নেয় আতলেতিকো। দলকে এগিয়ে দেন মিডফিল্ডার কোকে। তবে চটজলদিই সমতা ফেরান মেসি। সতীর্থ লুইস সুয়ারেসের পাস ধরে সমতা ফেরান আর্জেন্টাইন তারকা। ৫৯তম মিনিটে ফের নিশানা খুঁজে নেন মেসি। যদিও বল নিয়ন্ত্রণে নিতে গিয়ে তার হাতে লাগায় ভিএআর প্রযুক্তির সাহায্যে হ্যান্ডবলের বাঁশি বাজান রেফারি। গোল বাতিল।

তবে এরপরই গ্রিজমানের গোলে স্বস্তি ফেরে বার্সা শিবিরে। এরপর ৭৫তম মিনিটে জালে বল পাঠান বল প্রতিপক্ষের জালে পাঠান রিয়াল তারকা পিকে। ভিএআরের সাহায্যে এবার অফসাইডের বাঁশি বাজান রেফারি।

৮১তম মিনিটে মোরাতার সফল স্পট কিকে এগিয়ে যায় আতলেতিকো। ৮৬তম মিনিটে পরের গোলটি করেন কোররেয়া। বার্সাকে বিদায় করে হাসিমুখে মাঠ ছাড়ে অ্যাতলেটিকো।

১২ জানুয়ারি সৌদি আরবের মাঠেই ফাইনালে লড়বে মাদ্রিদের দুই ক্লাব। ট্রফির লড়াইয়ে মুখোমুখি রিয়াল ও অ্যাতলেটিকো। এবারই প্রথম স্পেনের বাইরে বসছে স্প্যানিশ সুপার কাপ।