শ্রীপুরে সড়ক র্দূঘটনায় স্কুল ছাত্রীর মৃত্যু

January 21, 2020 5:03 pm

শ্রীপুর প্রতনিধি:

মাগুরার শ্রীপুরে সড়ক দূর্ঘটনায় স্কুল ছাত্রী আলিফার মৃত্যুর ঘটনায় সোমবার বিকালে এলাকাবাসি প্রায় তিন ঘন্টা ঢাকা – খুলনা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে।আগুন জ্বালিয়ে অবরোধ করায় সড়কের উভয় পাশে দূরপাল্লার শতশত যানবাহন অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে।

মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার নাকোল রায়চরণ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী নিহত আলিফা (১২) মাঝাইল মান্দারতলা গ্রামের শাহিনুর রহমানের মেয়ে। প্রত্যক্ষদর্শিরা জানায়, আলিফা বিকাল ৪ টার দিকে স্কুল থেকে ফেরার পথে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের ওয়াপদা বাস স্ট্যাণ্ড এলাকায় দূর্ঘটনার শিকার হয়। রাস্তা পারাপারের সময় খুলনা থেকে ঢাকাগামি সোহাগ পরিবহনের একটি যাত্রীবাহি এসি বাস দ্রুতবেগে ওই এলাকা অতিক্রমের সময় মেয়েটিকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

এদিকে ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসি পরিবহনটি আটক করে ভাংচুর চালায়। পাশাপাশি সড়কের ব্যস্ততম দূর্ঘটনাপ্রবণ ওয়াপদা স্ট্যাণ্ড এলাকায় স্পিডব্রেকার তৈরি এবং ঘাতক চালকের বিচারের দাবি জানিয়ে সড়ক অবরোধ করে তারা। শতশত বিক্ষুব্ধ মানুষ সড়কে গাছের গুড়ি ফেলে এবং গুড়িতে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করে।পরে স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর ঘটনাস্থলে পৌঁছে আশ্বস্ত করলে বিক্ষুব্ধরা অবরোধ তুলে নেয়া হয়।

এ বিষয়ে মাগুরা পুলিশ সুপার খান মোহাম্মদ রেজোয়ান বলেন, ঘাতক পরিবহনটি আটক করা গেলেও চালক পালিয়ে গেছে। তাকে আটকের চেষ্টা চলছে।এছাড়া এলাকাবাসি স্পিড ব্রেকার নির্মাণের দাবি জানিয়েছে, সেটি খুব শিগগিরই নির্মান করে দেয়া হবে বলে তিনি জানান।