মোহনগঞ্জের বিয়ে করার ফাঁদে ফেলে ধর্ষণ অভিযোগ মাদ্রাসার ছাত্রীর

January 22, 2020 9:07 am

সৈয়দ সময়, নেত্রকোণা

নেত্রকোণা মোহনগঞ্জ উপজেলার দশম শ্রেণির মাদ্রাসার ছাত্রী বিয়ে করার প্রলোভনে ধর্ষিত হয়। জানা যায়, ঘটনার শিকার মোহনগঞ্জ থানার দরুন বানিয়ারী গ্রামের আব্দুল মালেকের কন্যা আলীয়া মাদ্রাসার ১০ম শ্রেণির ছাত্রী রুনা আক্তার (১৭) বিয়ে করার ফাঁদে ফেলে মোহনগঞ্জ শহরের রাউতপাড়া সানাউল্লা মাস্টারের ছেলে মোঃ সাইমন হোসেন রানা (২২) গত ১৮তারিখ দিবাগত রাতে তার নিজ বাড়িতে একাধিক বার ধর্ষণ করে বলে সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন নির্যাতিতা রুনা আক্তার ও তার মা জুলেখা খাতুন। রুনা আক্তার বলেন, একই এলাকায় থাকা সুবাদে পরিচয় হয় রানার সাথে এক পর্যায়ে তাদের মাঝে সম্পর্ক তৈরি হয় এবং বিয়ে করবে বলে পারিবারিক ভাবে যোগাযোগ করত। ঘটনা দিন রাতে বিয়ে করবে তাদের বাড়িতে আসে এবং কৌশলে ধর্ষণ করে। তার ডাকাডাকিতে পরিবারের লোকজন আসলে সে পালিয়ে যায়। জোর পূর্বক অবৈধ ভাবে ধর্ষণ করায় ধর্ষিতা ও তার মা জোড় দাবি জানান। মোহনগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন।