লেবাননের রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকার নিজে কাঁদলেন এবং প্রবাসীদের কাঁদালেন

January 29, 2020 10:02 am
Spread the love

ওয়াসীম আকরাম, লেবানন থেকে :-

বাংলাদেশ দূতাবাস ও লেবাননের জ্বলসীমানায় অবস্থানরত বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জাহাজ বিজয়ে উদ্যোগে ১৩তম মেডিক্যাল ক্যাম্প উদ্বোধন কালে লেবাননে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকার জানালেন লেবানন থেকে তার বিদায়ের বিষয়ে। লেবানন থেকে বিদায় নিয়ে অল্প কিছু দিন পর তিনি দেশে ফিরে যাবেন। তাঁর মেয়াদকাল শেষ হয়েছে। কথা গুলো বলতে গিয়ে তিনি আবেগাপ্লুত হয়ে যান।

কান্না জড়িত কন্ঠে তিনি বলেন, মানু্ষের সেবা করার সুযোগ সবাই পান না। তিনি লেবানন প্রবাসীদের সেবা করার সুযোগ পেয়ে আল্লাহর দরবারে লাখ কোটি শুকরিয়া জানান।

তিনি দূতাবাসের কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, তাঁর রেখে যাওয়া প্রবাসীদের সকল কাজ যেন সম্পন্ন করা হয়। যেমন জেল জরিমানা ছাড়া দেশে যাওয়া, নিয়মিত ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প করা, পাসপোর্টের কপি দিয়ে নতুন পাসপোর্ট নবায়ন ও আকামা করার সুযোগ করে দেয়া যা প্রক্রিয়াধীন সহ সকল কল্যাণমূলক কাজের যেন ধারাবাহিকতা রাখা হয় তিনি সেই অনুরোধ করেন।

প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমি আপনাদের সেবা দেয়ার চেষ্টা করেছি। হাজার হাজার প্রবাসীদের দোয়া ছিল বলেই অনেক কঠিন কাজগুলো সহজভাবে করতে পেরেছেন এবং তিনি আবারো প্রবাসীদের দোয়া চাইলেন।

সকলে মঙ্গল কামনা করে তিনি বলেন, আপনারা যে উদ্দেশ্য নিয়ে প্রবাসে এসেছেন, সেই উদ্দেশ্য সফল হয়ে যেন যার যার পরিবার পরিজনকে সুখে রাখতে পারেন সেই কামনা করেন।

অন্যদিকে রাষ্ট্রদূতের কাঁন্না শুনে অনেক প্রবাসীও কাঁন্না ভেঙ্গে পড়ে এবং নিরবে চোখের পানি মুছতে দেখা যায় চিকিৎসা নিতে আসা প্রবাসীদের। কারো দাবি এই রাষ্ট্রদূতকেই রাখা হোক আবার কারো দাবি তাঁর মত ভাল রাষ্ট্রদূত যেন ফের এই দূতাবাসে আসেন যিনি প্রবাসীদের সেবা করবেন।

বাংলাদেশ সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরে সাধারণ প্রবাসীদের দাবি প্রবাসী বান্ধব রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকারকে সরিয়ে নিয়ে যেন আরেক জন আব্দুল মোতালেব সরকার দেয়া হয়। যিনি পাশে থাকবেন প্রবাসীদের সুখে ও দুঃখে।