ড.কামালের কথা এখন রাস্তার ভাষা-নারায়নগঞ্জে ওবায়দুল কাদের

February 9, 2020 10:52 pm

সাইফুল ইসলাম প্রধান খোকন

বিএনপির নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির ব্যাপারে আন্দোলনের নামে যদি দেশে আবারো কোনো ধরনের জ্বালাও পোড়াও সংহিসতা বিএনপি শুরু করে তাহলে কিন্তুু আইন শৃঙ্খলা রক্ষা কারী বাহিনীর সদস্য রা বসে আঙ্গুল চুসঁবে না, অবশ্যই তারা কঠোর হস্তে এসবের জবাব দিবে – এ কথাগুলি বলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও সড়ক, সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি।

তিনি রোববার (৯ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে নারায়নগঞ্জের মেঘনা পাড়ে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়ক কাচঁপুর- মেঘনা ও গোমতী ২য় সেতু নির্মান ও পুরাতন ৩টি সেতুর পূর্ণবাসন প্রকল্পের উদ্বোধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য উপরোক্ত কথাগুলি বলেন । গতকাল রাজধানীর পল্টনে বিএনপির সমাবেশে দেওয়া ড. কামালের বক্তব্যের একটি কথার প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, তার মতো একজন মানুষ যে এতো বাজে, অগণতান্ত্রিক ভাষায় কথা বলতে পারেন সেটা কারো বোধগম্য নয়, ড. কামাল হোসেনের কথা তো রাস্তার লোকের কথার মতো বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক । নাঃগঞ্জ জেলার মেঘনা ঘাট এলাকায় আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সড়ক ও সেতু মন্ত্রী আরো বলেন, বিএনপির নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মামলা কোনো রাজনৈতিক মামলা নয় আর এটি আওয়ামী লীগ সরকারও দায়ের করে নাই। বিগত তও্বাবধায়ক সরকারের আমলে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের হয়েছে আর বেগম জিয়ার আইন জীবিরা যদি নিয়মিত উপস্থিত থেকে মামলাটি লড়তেন তাহলে আরো অনেক আগেই এ মামলা শেষ হয়ে যেতে। বেগম জিয়ার মুক্তির বিষয়ে আওয়ামী লীগের করার কিছুই নেই বলে ওবায়দুল কাদের মন্তব্য করেন ।

তিনি আরো বলেন মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে রয়েছে, সারা দেশেই ব্যাপক উন্নয়ন হচ্ছে আর এরই অংশ হিসাবে কাঁচপুর -মেঘনা গোমতী ২য় সেতু ও ৩টি পুরাতন সেতু পূর্ণবাসন করা হয়েছে। জাপানের জাইকার সহায়তায় আধুনিক ও যুগোপযোগী করে ৪ লেনে নির্মান করা হয়েছে, নির্ধারিত সময়ের ৬ মাস আগে সেতুগুলির কাজ সমাপ্ত করায় ১৩শত ৮৮ কোটি টাকা ব্যয় কমেছে এ কারনে জাপান সরকার কে ধন্যবাদ জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, কাচঁপুর -মেঘনা ও গোমতী সেতু দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে সড়ক পরিবহন ও সেতু বিভাগের সকল প্রকৌশলী, ঠিকাদারদের জন্য শিক্ষনীয়, অনুকরনীয় হয়ে থাকবে । এ সেতুর কারনে এখান ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে এখন পন্য বহনে আরো সহজ হলো