মেডিকেল হয় বাংলাদেশে, কমিশন যায় জর্ডানে!

March 3, 2020 10:29 am

কোহিনূর আক্তার, আম্মান, জর্ডান থেকেঃ

মধ্যপ্রাচ্যের রাজতান্ত্রিক দেশ জর্ডানে প্রতি বছর প্রায় ২০ হাজার নারী কর্মী কাজের উদ্দেশ্যে গমন করে। দেশটিতে যেতে হলে নারী কর্মীদের ঢাকায় অবস্থিত জর্ডান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমোদিত ১৪ টি মেডিকেল সেন্টার থেকে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়। স্বাস্থ্য পরীক্ষার ফি বাবদ মেডিকেল সেন্টার গুলো ১৫০০ টাকা গ্রহন করে।

কিন্তু একটি অসাধু চক্র মেডিকেল অনলাইন করার নামে ১০ ডলার করে সার্ভিস চার্জ গ্রহন করে থাকে। এইভাবে এই চক্রটি প্রতি বছর ২ লক্ষ মার্কিন ডলার মেডিকেল সেন্টার গুলো থেকে আদায় করে থাকে। এই অল্প পরিমান টাকা দিয়ে ভালো ভাবে মেডিকেলের সব গুলো টেষ্ট/পরীক্ষা করা সম্ভব হয় না। যার ফলে অনেক নারী কর্মী জর্ডানে যাওয়ার পর জর্ডানের সরকারি হাসপাতালে মেডিকেল চেক আপ করার পরে মেডিকেলে অর্বতীর্ণ হয়ে বাংলাদেশে ফেরত চলে আসে। যিনি এই চক্রের প্রধান তার আম্মানে একটি নারী কর্মী নিয়োগকারী অফিস রয়েছে। এই অফিসের মাধ্যমে টাকা পাচার ও মেডিকেল কমিশন এর অর্থ জর্ডানের একজন স্থানীয় ব্যবসায়ী ও দূতাবাসের কর্মকর্তার পকেটে যায়।
এই সিন্ডিকেট কে এখনই নির্মূল করতে বাংলাদেশ সরকারের দূর্নীতি দমন কমিশন ও আম্মানের বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত মহোদয় এর কাছে বিশেষ ভাবে অনুরোধ জানিয়েছেন উভয় দেশের ব্যবসায়ীরা। নিচে ১৪ টি মেডিকেল সেন্টার এর নাম কপি সংযুক্ত।
Attachments area

Please follow and like us: