সুলতান আহমেদ মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ফেরদৌসি আক্তার রেহেনা দূর্ঘটনার কবলে পড়ে অসুস্হ

April 1, 2020 4:53 pm

মোঃ খোকন প্রধান, স্টাফ রিপোর্টার

সুলতান আহমেদ মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ফেরদৌসি আক্তার রেহেনা দূর্ঘটনার কবলে পড়ে অসুস্হ হয়ে গেছেন।

বুধবার ০১ এপ্রিল বেলা ১১ টার দিকে সে তার ফতুল্লাস্হ নিজ বাড়ীর সিড়িঁতে পড়ে বাম পা মচকে যায় এবং সে গুরুত্বর অসুস্হ হয়ে পড়েন বলে জানা গেছে। উল্লেখ্য যে করোনা ভাইরাসের কারনে সারা দেশের মানুষ যখন ঘর বন্দী হয়ে পড়েছেন এসময় কর্মহীন, অসহায়, সাধারন মানুষকে বিভিন্ন সাহায্য সহযোগিতা করেন আলোচনায় চলে আসেন সুলতান আহমেদ মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের এর চেয়ারম্যান ফেরদৌসি আক্তার রেহেনা।

বাংলাদেশে যখন করোনা ভাইরাসের প্রকোপের সংবাদ বের হয় ঠিক তখন থেকেই উক্ত নারী করোনা ভাইরাস সম্পর্কে জনসাধারনকে সচেতন করেন। এরপরে সে দিন মজুর, অসহায় সাধারন মানুষের মাঝে রান্না করা খাবারসহ মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সাবান বিতরন করেন।

করোনা ভাইরাসের কারনে সারা বিশ্বের মতো বাংলাদেশের সর্ব সাধারন যখন ঘরমুখী ঠিক তখনি ফেরদৌসি আক্তার রেহেনা ১৬০ জন অসহায়, কর্মহীন মানুষের মাঝে জন প্রতি ৫ কেজি চাউল, ১ কেজি ডাল, তৈল, সাবান বিতরন করেন পাশাপাশি তিনি তার দুটি বাড়ীর ১৫টি পরিবারের চলতি মাসের বাসা ভাড়া মওফুক করেন এবং তাদের খাদ্য সামগ্রী দিয়ে সহযোগিতা করেন।

সুলতান আহমেদ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ফেরদৌসি আক্তার রেহেনা মুঠো ফোনে জানায়, বুধবার বেলা ১১ টার দিকে আমি নিজ বাড়ীর ৩য় তলার সিড়িতে পা ফসকে পড়ে গিয়ে দূর্ঘটনার শিকার হই, এসময় আমার বাম পায়ে চোট লাগে এবং শারীরিক ভাবে কিছুটা অসুস্হ হয়ে পড়ি, বিছানায় শুয়েঁ শুয়েঁ ও আমি আমাদের এলাকার অসহায়, কর্মহীন, সাধারন মানুষের কথা ভাবছি এবং অতীতের মতো আমি তাদের পাশে থাকবো, আপনারাদের (সাংবাদিক) মাধ্যমে আমি সকলের কাছে দোয়া চাই। করোনা ভাইরাসের প্রকোপ যে পর্যন্ত শেষ না হবে, যে পর্যন্ত সাধারন মানুষ কর্ম জীবনে না ফিরবে ততদিন আমি সুলতান আহমেদ মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে তাদের সহযোগিতা করবো ইনশাল্লাহ্। আরো উল্লেখ্য যে, ফেরদৌসি আক্তার রেহেনা শুধু করোনা ভাইরাস এর এ সময়ই নয় সে বিভিন্ন সময়ে সমাজে সুবিধা বঞ্চিত, অসহায় মানুষের বিভিন্ন সমস্যায় তাদের পাশে থেকেছেন সাধ্য মতো সহযোগিতার হাত বাড়িঁছেন এ আলোচিত নারী।

Please follow and like us: