ফতুল্লায় শিশু ধর্ষনের ঘটনায় ধর্ষক গ্রেপ্তার

May 22, 2020 12:52 pm

মোঃ খোকন প্রধান ষ্টার্ফ রিপোর্টার-

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ৬ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় চান মিয়া নামের ৮০ বছরের এক বৃদ্ধকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২১ মে) সন্ধ্যায় শহরের জামতলা এলাকায় মেয়ের বাড়ি থেকে ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতরকৃত ধর্ষক চাঁদপুর জেলার দক্ষিণ মতলব থানাধীন পুটিয়া এলাকার জব্বার ব্যাপারীর ছেলে চান মিয়া।

এদিকে ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার অভিযোগ উঠেছে বাড়িওয়ালা জসিম মুন্সির বিরুদ্ধে। ধর্ষণের শিকার শিশুর পরিবার দরিদ্র হওয়ায় এক হাজার টাকা দিয়ে বাড়ির মালিক ঘটনাটি মীমাংসা করে দেয়।

এর আগে গত ১৯ মে দিনের বেলা ফতুল্লার পশ্চিম মাসদাইর এলাকায় জসিম মুন্সির বাড়ির নিচতলার ভাড়াটিয়া শুঁটকি ব্যবসায়ী চান মিয়া কৌশলে তার ঘরে নিয়ে একই বাড়ির ভাড়াটিয়া শিশুটিকে ধর্ষণ করে।

ধর্ষণের শিকার শিশুর পরিবারের বরাত দিয়ে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোদাচ্ছের জানান, ফতুল্লার পশ্চিম মাসদাইর প্রাইমারি স্কুলের আগে জসিম মুন্সির বাড়ির নিচতলায় ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করেন চান মিয়া। তিনি এলাকায় শুঁটকি বিক্রি করেন। আর একই বাড়ির ৪র্থ তলায় বাবা-মাসহ নানির সাথে বসবাস করে ধর্ষণের শিকার শিশু। কিছুদিন আগে ছোট শিশুটিকে নানির কাছে রেখে বাবা-মা গ্রামের বাড়ি লালমনিরহাট যায়।

তারা লকডাউনে আটকা পড়ে যায়। আর শিশুটিকে বাসায় একা রেখে নানি বাড়ি বাড়ি গিয়ে মানুষের কাছে হাত পাতার জন্য রাস্তায় বের হয়। সেই সুযোগে ১৯ মে মঙ্গলবার দিনের বেলা কোনো এক সময় সু-কৌশলে চান মিয়া তার ঘরে নিয়ে শিশুটিকে জোর করে ধর্ষণ করে। বাসায় নানি ফিরলে শিশুটি তাকে সব জানিয়ে দেয়। ওই শিশুর নানি বাড়িওয়ালাকে ঘটনার বিস্তারিত জানায়৷

পরে বাড়িওয়ালা চান মিয়ার সাথে যোগাযোগ করে শিশুটির নানির হাতে এক হাজার টাকা দিয়ে ঘটনাটি মীমাংসা করে দেয়। ঘটনাটি যখন এলাকায় জানাজানি হয় তখন বাড়িওয়ালা চান মিয়াকে আত্মগোপনে যেতে সুযোগ করে দেয়। আর বাড়িওয়ালার এমন আচরণ দেখে পরে শিশুটির নানি ফতুল্লা মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ চান মিয়াকে তার মেয়ের বাসা জামতলা হতে আটক করে।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে শিশুটির নানী বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

Please follow and like us: