শ্রীবরদীতে ছাগলে ক্ষেত খাওয়াকে কেন্দ্র করে বাড়িতে হামলা ও লুটপাট

May 31, 2020 6:14 pm

রমেশ সরকার, শ্রীবরদী (শেরপুর) প্রতিনিধি

শেরপুরের শ্রীবরদীতে ছাগলে আলুক্ষেত খাওয়াকে কেন্দ্র করে বাড়িতে হামলা ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাটি ঘটেছে (৩০ মে) শনিবার দিবাগত রাত আনুমানিক আড়াইটার দিকে উপজেলার সীমান্তবর্তী সিংগাবরুনা ইউনিয়নের মেঘাদল গ্রামের আনোয়ার হোসেনের বাড়িতে। এতেকরে এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

জানা গেছে, কয়েকদিন আগে (২৪ রমজান) প্রতিবেশি মোক্কা মিয়ার ছেলে জামরুলের ছাগল আনোয়ার হোসেনের আলুর গাছ খায়। এসময় আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী নারগিস বেগম ছাগলটিকে বেঁধে রাখে। সন্ধ্যার দিকে জামরুলের স্ত্রী জ্যো¯œা বেগম প্রতিবেশি হানিফ মিয়ার স্ত্রী মোর্শেদা নামে এক মহিলাকে দিয়ে ছাগলটি বাড়িতে আনায়। পরে রাতে আনোয়ার হোসেন বাড়িতে আসলে উভয় পক্ষের মধ্যে বাক-বিতন্ডা ও হাতাহাতি হয়। এঘটনায় জামরুলের শ্বশুড় নঈ মিয়া বাদী হয়ে আনোয়ার হোসেনসহ তার পরিবারের ৪ জনকে আসামী করে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। এরপর থেকে আনোয়ার হোসেন পুলিশের ভয়ে রাতে বাড়িতে থাকেন না। এতে সুযোগ পেয়ে শনিবার রাতে বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট করে দুবৃত্তরা ।

আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী নারগিস বেগম জানান, রাজ বাহার, জামরুল, নঈ মিয়া ও জুলমানসহ অজ্ঞাত আরো ১০/১২ বাড়িতে ঢুকে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট করেছে। এসময় তারা সুকেচের তালা ভেঙ্গে নগদ ৫০ হাজার টাকা, ৬ আনা ওজনের স্বর্ণের কানের দুল, ৮ আনা ওজনের ২টি স্বর্ণের আংটি ও ৬ আনা ওজনের ১টি স্বর্ণের গলার চেইন লুট করে নিয়ে যায়। জামরুলের সাথে কথা হলে তিনি জানান রাতে চিতকার চেচাসেচি শুনেছি। প্রতিবেশি খোরশেদ আলম, আকবর আলী ও ওরাব আলী জানান রাতে চিতকার চেচাসেচি শুনে আনোয়ার হোসেনের বাড়িতে এসে কাউকে দেখতে পাই নাই। তবে ভাংচুরের চিত্র দেখেছি। আনোয়ার হোসেন জানান, আমি বাড়িতে না থাকার সুযোগে দুবৃত্তরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। এনিয়ে আমি থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

শ্রীবরদী থানার অফিসার্স ইনচার্জ মোহাম্মদ রুহুল আমিন জানান, অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Please follow and like us: