বাসের ভাড়া এখন বিমান ভাড়ার কাছাকাছি!

May 31, 2020 8:35 pm

নিউজ ডেক্সঃ

মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর সীমিতভাবে চালু করা হয়েছে গণপরিবহন। তবে ভাড়া বাড়ানো হয়েছে ৬০ শতাংশ। করোনা পরিস্থিতিতে এক সিটে যাত্রী বসিয়ে আরেক সিট ফাঁকা রাখার কারণ দেখিয়ে এমন সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা বলছে কর্তৃপক্ষ। কিন্তু এই ৬০ শতাংশ বৃদ্ধির ফলে দেখা যাচ্ছে, বাসভাড়া কোনো কোনো ক্ষেত্রে বিমানভাড়ার কাছাকাছি পৌঁছে গেছে। এ নিয়ে যাত্রী যাত্রী কল্যাণ সমিতি, বাম গণতান্ত্রিক জোটসহ বিভিন্ন মহল ক্ষোভ প্রকাশ করেছে।

করোনাকালীন বাস ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে আজ রোববার (৩১ মে) প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, আন্তঃজেলা ও দূরপাল্লা রুটে বাস বা মিনিবাস চলাচলের ক্ষেত্রে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের ২০১৬ সালের ৩ মে প্রজ্ঞাপনমূলে উল্লেখিত বিদ্যমান ভাড়ার (যাত্রীপ্রতি কিলোমিটার সর্বোচ্চ ১.৪২ টাকা) ৬০ শতাংশ বৃদ্ধি করা হলো।

তবে একজন যাত্রীকে বাস বা মিনিবাসের পাশাপাশি দুইটি আসনের একটি আসনে বসিয়ে অপর আসনটি অবশ্যই ফাঁকা রাখতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি অনুসারে শারীরিক ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।

এতে দেখা যাচ্ছে, ভাড়া ৬০ শতাংশ বৃদ্ধির ফলে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম বাস ভাড়া প্রায় বিমান ভাড়ার কাছাকাছি হয়ে যাচ্ছে। অথচ বাসের মতো বিমানেও ৫০ শতাংশ যাত্রী বহন করা হচ্ছে।

ঢাকা-চট্টগ্রাম এসি বাসের ভাড়া ছিলো সর্বোচ্চ ১২৫০ টাকা। নতুন সিদ্ধান্তের ফলে সেটি বেড়ে দাঁড়াবে ২০০০ টাকা। অথচ ১ জুন থেকে সর্বনিম্ন ২৫০০ টাকায় ঢাকা থেকে বিমানে ওঠে চট্টগ্রামে যেতে পারবেন যাত্রীরা।

আগামী ১ জুন থেকে ফ্লাইট পরিচালনার জন্য ইতোমধ্যে ভাড়া ঘোষণা করেছে এয়ারলাইন্সগুলো। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ঢাকা-সৈয়দপুর রুটের সর্বনিম্ন ওয়ানওয়ে টিকেট ধরা হয়েছে ৩৩০০ টাকা, ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটের ৩১০০ এবং ঢাকা-সিলেট রুটের ৩১০০ টাকা। ইউএস-বাংলার ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম ও সৈয়দপুর রুটে সর্বনিম্ন ওয়ানওয়ে ভাড়া ২৯৯৯ টাকা এবং সিলেট রুটে ৩২০০ টাকা। নভোএয়ারের ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম রুটে সর্বনিম্ন ওয়ানওয়ে ভাড়া ২৫০০ টাকা এবং সিলেট ও সৈয়দপুর রুটে ৩২০০ টাকা। প্লেনের যাত্রী সংখ্যা কমলেও অভ্যন্তরীণ রুটে ভাড়া প্রায় আগের মতোই থাকছে।

অথচ যাত্রী সংখ্যা কমানোর অজুহাত দেখিয়ে বাসভাড়া বাড়ানো হয়েছে ৬০ শতাংশ। এই সিদ্ধান্ত জানানোর পর বাস কাউন্টারে খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম রুটে গ্রিন লাইনের এসি ডাবল ডেকারের ভাড়া ১৮০০ টাকা, দেশ ট্রাভেলসের ১৬০০ টাকা (এসি), সেন্টমার্টিন পরিবহনের ১৩০০ টাকা (এসি, ইকোনমি), সিল্কলাইনের ১৭০০ টাকা (এসি), গ্রিন সেন্টমার্টিন এক্সপ্রেসের ভাড়া ২০০০ টাকা (এসি) ধরে টিকেট বিক্রি শুরু হয়েছে। এছাড়া গ্রিন লাইনে সিলেটের বাসভাড়া ২০০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। অন্যরা এখনো ভাড়া নির্ধারণ করেনি।

Please follow and like us: