কঠিন লড়াইয়ে জিতে শীর্ষে বার্সা

June 25, 2020 1:55 am

নিউজ ডেস্ক

আগের তিন ম্যাচে দলটির বিপক্ষে জালের দেখাই পায়নি বার্সেলোনা। চলতি মৌসুমে দুইবার পেতে হয়েছে হারের তেতো স্বাদ। শঙ্কা জেগেছিল আবারও আথলেতিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে পয়েন্ট হারানোর। দারুণ এক গোলে বার্সেলোনার ত্রাতা ইভান রাকিতিচ।

লা লিগার ম্যাচে মঙ্গলবার রাতে ১-০ গোলে জিতেছে কিকে সেতিয়েনের দল। ২০১৮ সালের মার্চের পর এই প্রথম বিলবাওয়ের বিপক্ষে জিতল বার্সেলোনা।

৩১ ম্যাচে ২১ জয় ও ৫ ড্রয়ে ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ফিরেছে বার্সেলোনা। মায়োর্কার বিপক্ষে বুধবার জিতলেই শীর্ষে ফিরবে রিয়াল মাদ্রিদ। ৩০ ম্যাচে দলটির পয়েন্ট ৬৫।

চলতি মৌসুমে বার্সেলোনাকে দুইবার হারানো বিলবাও পায় প্রথম সুযোগ। তৃতীয় মিনিটে উনাই লোপেসের নিচু ক্রস ঝাঁপিয়ে ব্যর্থ করে দেন মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেন।

পরের মিনিটে সুযোগ আসে বার্সেলোনার সামনে। বিপজ্জনক জায়গা থেকে ঠিকমতো শট নিতে পারেননি লুইস সুয়ারেস। ফিরতি বলে সের্হিও বুসকেতসের শট ডি-বক্সে প্রতিহত হয়।

বল নিয়ন্ত্রণে এগিয়ে ছিল স্বাগতিকরা। তবে সুযোগ তৈরিতে এগিয়ে ছিল বিলবাও। সফরকারীদের রক্ষণ ছিল দুর্দান্ত। দারুণ চেষ্টা করেও জমাট রক্ষণ ভাঙতে পারেননি লিওনেল মেসি-অঁতোয়ান গ্রিজমান।

দ্বিতীয়ার্ধেও সেই চিরচেনা ফুটবল খেলার চেষ্টায় ছিল বার্সেলোনা। বল দখলে রেখে আক্রমণে ওঠার প্রচেষ্টা। অধিকাংশ সময় বিলবাওয়ের সীমানাতেই বল ছিল; কিন্তু খেলায় ছিল না গতি।

এর মাঝেই ৫৪তম মিনিটে দারুণ সুযোগ আসে বার্সেলোনার সামনে। বিপজ্জনক জায়গায় গ্রিজমানকে খুঁজে পান মেসি। এগিয়ে এসে ফরাসি ফরোয়ার্ডের শট ঠেকিয়ে দেন সফরকারী গোলরক্ষক।

দুই উইং দিয়ে কোনো আক্রমণ করতে পারছিল না বার্সেলোনা। বারবার মাঝ বরাবর দিয়ে আক্রমণে গিয়ে ভেস্তে যাচ্ছিল প্রতিপক্ষের জমাট রক্ষণে। ৬২তম মিনিটে মেসির ফ্রি কিকে সুযোগ পান আর্তুরো ভিদাল। কিন্তু বলে ঠিকমতো পা ছোঁয়াতে পারেননি তিনি।

খানিক পর মেসির ক্রসে আরেকটি সুযোগ নষ্ট করেন চিলির এই মিডফিল্ডার। বল ক্লিয়ার করতে পারেনি বিলবাও। মেসির কাছ থেকে বল পেয়ে বুলেট গতির শটে জাল খুঁজে নেন খানিক আগে মাঠে নামা রাকিতিচ।

এক বছরের বেশি সময় পর জালের দেখা পেলেন ক্রোয়াট এই মিডফিল্ডার। ৭১তম মিনিটের এই গোলে বিলবাওয়ের বিপক্ষে গোল খরা কাটাল বার্সেলোনা। দলটির বিপক্ষে স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নরা জালের দেখা পেল ৩৪৬ মিনিট পর।

বজায় থাকল ১৯৮৫ সালের এপ্রিলের পর থেকে ঘরের মাঠে বিলবাওয়ের বিপক্ষে গোলের ধারা।

৮০তম মিনিটে একটুর জন্য জালের দেখা পাননি মেসি। তার শট একটুর জন্য লক্ষ্যে থাকেনি। ৮৯তম মিনিটে তার আরেকটি শট বিলবাওয়ের একজনের পায়ে লেগে বারের কাছ দিয়ে বেরিয়ে যায়।

যোগ করা সময়ে জর্দি আলবার ক্রসে ভিদালের শট ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক। ফিরতি বলে আনসু ফাতির শট ফিরে পোস্টে লেগে।

কষ্টের জয়ে ম্যাচ শেষ হতে না হতে চলে আসে মেসির জন্মদিন। রাকিতিচ অধিনায়ককে দিলেন দারুণ আগাম উপহার।

Please follow and like us: