পূর্বধলায় মা ছেলেসহ ৫জনকে কুপিয়েছে প্রতিপক্ষ

August 9, 2020 8:02 am

সৈয়দ সময়, নেত্রকোনা

নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার বিষকাকুনি ইউনিয়নের বিষমপুর গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বৃদ্ধ মা মোছা. নূরুন্নাহর ও চার ছেলেকে গত রোববার কুপিয়ে আহত করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। হামলাকারীরা নজরুল ইসলামদের বসতঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর, নগদ টাকা লুট করে নিয়ে গেছে। আহত মোছা. নূরুন্নাহার, ছেলে নজরুল ইসলাম(৪০), সাদ্দাম হোসেনকে(৩৫) ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং সাইকুল ইসলাম(৩০) ও আনারুল ইসলামকে(২১) পূর্বধলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্ের ভর্তি করা হয়েছে।
এ ঘটনায় আহত নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে সোমবার প্রতিপক্ষের আবদুল হেলিম, আবদুল আজিজ, সেলিম মিয়া, উজ্জল মিয়াসহ ৭জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ৪-৫ জনের বিরুদ্ধে পূর্বধলা থানায় মামলা করেন। পুলিশ শনিবার পর্যন্ত মামলার কোন আসামিকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

অভিযোগে জানা গেছে, জেলার পূর্বধলার বিষমপুর গ্রামের মৃত আবদুল হামিদের সাথে দীর্ঘদিন ধরে একই গ্রামের প্রতিবেশী আবদুল হেলিম, আবদুল আজিজদের জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল। সম্প্রতি আবদুল হেলিম মারা যান। পরে তার ছেলে নজরুল ইসলাম, সাদ্দাম হোসেনসহ চার ভাইয়ের চলে বিরোধ। এরই জের ধরে গত সোমবার ট্রাক্টর নিয়ে জমিতে চাষাবাদ করতে যাওয়ার সময় আবদুল হেলিম, আবদুল আজিজের নেতৃত্বে ১০-১১জন বাধা প্রদান করে। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। এক পর্যায়ে আবদুল হেলিমের লোকজন ধারালো অস্ত্র নিয়ে প্রতিপক্ষ নজরুল ইসলাম ও তার ভাইদের ওপর হামলা চালায়। ছেলেদের বাঁচাতে বৃদ্ধা নূরুন্নাহার এগিয়ে গেলে হামলাকারীরা তাকেও মারধর করে। এতে বৃদ্ধা নুরুন্নাহার, ছেলে নজনুল ইসলাম, সাদ্দাম হোসেন, সাইকুল ইসলামও আনারুল ইসলাম গুরুতর আহত হন। এ ব্যাপারে সোমবার পূর্বধলা থানায় নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা করেন। পুলিশ শুক্রবার পর্যন্ত মামলার কোন আসামিকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

পূর্বধলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধে দুই পক্ষের মধ্যে মারামারি হয়েছে। উভয়পক্ষ থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

Please follow and like us: