নেত্রকোনায় ‘সাধু বাবা তন্ত্রমন্ত্রের’ কথা বলে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ

August 10, 2020 10:46 pm

সৈয়দ সময়, নেত্রকোনা প্রতিনিধি

নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলার কাকৈরগড়া ইউনিয়নের পূর্ব কৃষ্ণেরচর গ্রামের মোছা. দিলোয়ারা খানমের কাছ থেকে ‘সাধু বাবা তন্ত্র মন্ত্রের’ কথা বলে ১লাখ ২১ হাজার ৫০০ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে জনৈক ভন্ড তান্ত্রিকের বিরুদ্ধে। সোমবার নেত্রকোনার পুলিশ বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেন দিলোয়ারা খানম।

অভিযোগে জানা গেছে, ঈদুল আযহার ৭-৮দিন আগে টেলিভিশনের স্কলে জনৈক ‘সাধু বাবা তন্ত্র মন্ত্র’ সাং রাঙ্গামাটির বিজ্ঞাপন দেখে জেলার দুর্গাপুরের পূর্ব কৃষ্ণেরচর গ্রামের মৃত নজরুল আহমেদের স্ত্রী মোছা. দিলোয়ারা খানম প্রভাবিত হন। সাধু বাবার দেয়া তন্ত্র মন্ত্রের দেয়া মোবাইল ০১৩০৬-৭১৯১৯৯ নাম্বারে তার দূরাবস্থার কথা জানিয়ে যোগাযোগ করেন। সাধু বাবা পরিচয়দানকারী রকি নামে জানান, তার জিন সাধনা আছে। তার সকল বালা মুছিবত দূর করে দেয়ার কথা বলে এসএ পরিবহনের মাধ্যমে কৌটায় ভর্তি প্যাকেটে দুটি কবজ পাঠিয়ে দেয়। দিলোয়ারা খানম প্যাকেট ভর্তি তাবিজ দুটি এসএ পরিবহন থেকে ৪ হাজার ৫০০ টাকা দিয়ে গ্রহন করেন। সাধু বাবা একটি তাবিজ গলায় ও অপরটি ঘরের কোনে পুতে রাখার জন্য বলেন। তার কথামত দিলোয়ারা খানম কাজ করে। তাবিজ গলায় ঝুলানোর পর তার মানষিক অবস্থার পরিবর্তন হয়। সাধু বাবা তাকে ফোনে জানায় ধ্যানে বসতে হবে। এ জন্য সাপের রক্ত বাবদ ২৮ হাজার, কালো ঝরনার পানি বাবদ ২৪ হাজার এবং বিভিন্ন সময়ে কথা বলে আরও ৬৫ হাজার টাকা বিকাশের মাধ্যমে হাতিয়ে নেন। পরবর্তী সময়ে আরও ৪০ হাজার টাকা দাবী করে। দিলোয়ারা খানম সাধু বাবা তন্ত্র মন্ত্রের কথায় জমানো টাকা দিয়ে দেন। পরে বিষয়টি বুঝতে পেয়ে টাকা ফেরৎ চাইলে জীন পরীর ভয় দেখিয়ে টাকা অস্বীকার এবং মৃত্যুর ভয় দেখানো হয় দিলোয়ারা বেগমকে।

সাধু বাবা তন্ত্র মন্ত্রের দেয়া মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি। মোবাইলটি কেটে দেয়া হয়।

নেত্রকোনার পুলিশ সুপার মো. আকবর আলী মুন্সী বলেন, অভিযোগের বিষয়টি এখন আমার কাছে আসেনি। পাওয়ার পর যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Please follow and like us: