বাঙ্গালী জাতির পক্ষে বঙ্গবন্ধুকে এড়িয়ে চলা অসম্ভব

August 14, 2020 3:47 pm
Spread the love

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

‘‘বাংলা ভাষা জানেন এমন কোনো মানুষ যেমন রবীন্দ্রনাথকে এড়িয়ে চলতে পারেন না, তেমনি বাংলাদেশি কোনো মানুষের পক্ষে বঙ্গবন্ধুকে এড়িয়ে চলা অসম্ভব৷

১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্ট মৃত্যু হয়েছিল একটি স্বপ্নের, মৃত্যু হয়েছিল একটি বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টার। এ কলঙ্ক মুছে যাবার নয়, এ কলঙ্ক ভূলে যাবার নয়। একজন সুসন্তান কখনো বাবা-মাকে যেমন ভূলে যেতে পারেন না তেমনি আমরা সুশৃখংল জাতি হিসেবে জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তান, বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা, বাঙ্গালী জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ভূলে যাওয়া সম্ভব নয়। শোক দিবস উপলক্ষে এমনভাবেই নিজের আবেগ প্রকাশ করলেন লক্ষ্মীপুরের স্বেচ্ছাসেবক লীগের শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক এবং সাবেক জননন্দিত চেয়ারম্যান মরহুম হাজী আব্দুল গফুর তহশিলদার সাহেবের সুযোগ্য সন্তান আব্দুর রহমান দিদার।

১৫ আগস্ট জাতীয় শোকের দিন। বাংলার আকাশ-বাতাস আর প্রকৃতিও অশ্রুসিক্ত হওয়ার দিন। কেননা পঁচাত্তরের এই দিনে আগস্ট আর শ্রাবণ মিলেমিশে একাকার হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর রক্ত আর আকাশের মর্মছেঁড়া অশ্রুর প্লাবনে।

বঙ্গবন্ধু মনেপ্রানে বিশ্বাস করতেন বাঙালী কোনদিন বঙ্গবন্ধুর ক্ষতি করতে পারে না! অথচ সেই বাংলার মাটি সিক্ত হলো বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের রক্তে! কার ইশারায় কার স্বার্থে বঙ্গবন্ধুকে নির্বংশ করার পরিকল্পনা আঁকা হয়েছিলো? সেই ধাঁধার জবাব কি পাবে এই বাংলার মাটি?! এই মাটি বয়ে বেড়াচ্ছে বঙ্গবন্ধুর রক্তঋণ! এ ঋণ শোধ করব কি ভাবে?

লক্ষীপুর জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক আব্দুর রহমান বলেন, শোককে হৃদয়ে লালন করে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সোনার বাংলা গড়তে আমাদের বদ্ধপরিকর হতে হবে। দুর্নীতির কালো থাবাকে মুছড়ে ভেঙ্গে দিয়ে উন্নয়নের অগ্র জোয়াড়কে এগিয়ে যেতে সহায়তা করতে হবে, তবেই বিনির্মাণ হবে সোনার বাংলা।

শতজন্ম বার্ষিকীর এই আগস্টে শোকাহত প্রানে জানাই আজন্ম শ্রদ্ধা। এই জাতীর অন্তরে আপনি তীব্র ভাবে বিরাজ করবেন হে পিতা। ১৫ই আগস্টে নিহত সকল শহীদদের প্রতি জানাই বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলী।

আব্দুর রহমান দিদার
শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক
লক্ষ্মীপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ