স্বামীকে মারপিট, প্রতিবাদ করায় স্ত্রীকে হত্যা করলো সন্ত্রাসীরা

August 25, 2020 2:30 pm
Spread the love

এসএম বাচ্চু, তালা(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি:

স্বামীকে ২ আটি পাট চুরি করার মিথ্যা অভিযোগে মারপিটে প্রতিবাদ করায় গৃহবধু নাসিমা বেগম (৪০) কে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা।নিহত গৃহবধূ নাসিমা বেগম এই গ্রামের নাজের শেখের স্ত্রী।ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার সকালে সাতক্ষীরা জেলায় তালা উপজেলার মহান্দি গ্রামে।

নিহত গৃহবধুর ননদ শাহানারা বেগম জানান,আমার ভাই নাজের শেখকে মিথ্যা অভিযোগ গত মঙ্গলবার বিকালে মহান্দি বাজারের আওয়ামীলীগ অফিসে বেধড়ক মারপিট করে প্রতিবেশি করিম মোড়ল’র ছেলে মনিরুল মোড়ল ও নরিম মোড়লের ছেলে মিন্টু মোড়ল।

এঘটনার সুত্রে ধরে সোমবার দুপুরে আহত নাজের শেখ’র স্ত্রী নাসিমা বেগম নলকূপের পানি আনতে যেয়ে মনিরুল ও মিন্টু’র দেখা পায়। এ সময় তিনি তাদের কাছে স্বামীকে মারপিট করার কারন জানতে চায় এবং প্রতিবাদ করেন। একপর্যায়ে মিন্টু মোড়ল সহ মনিরুল মোড়ল ও তার স্ত্রী হোসনেয়ারা বেগম ও তার দু’বোন আমেনা ও জামেলা বেগম দা শাবল দিয়ে নাসিমা বেগমের রক্তাক্ত জখম করে।

স্থানীয় এলাকা বাসী মুমূর্ষ অবস্থায় নাসিমা বেগমকে উদ্ধার করে মহান্দি বাজারের কথিত ডাক্তার শহিদুল মোল্যার কাছে নিয়ে গেলে প্রাথমিক অপচিকিৎসা প্রদান করেন।এখান থেকে বাড়ি আনার পর মঙ্গলবার সকালে নাসিমা বেগম মারা যায়।

নিহতের পরিবারের অভিযোগ,অভিযুক্তরা পেশীশক্তির বল দেখিয়ে আহত গৃহবধূকে তালা হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা করাতে দেয়নি হামলাকারীরা। এছাড়া, গ্রাম্য ডাক্তার শহিদুল মোল্যা অবস্থা আশংকাজনক দেখার পরও টাকার লোভে নাসিমা বেগমকে নিজেই চিকিৎসায় রাখেন এবং বাড়িতে থাকার পরামর্শ দেন।ঘটনার পর থেকে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

হত্যা ঘটনার সংবাদ পেয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (তালা সার্কেল) মো. হুমায়ুন কবির ও তালা থানার ওসি মো. মেহেদী রাসেল সহ রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

তালা থানার অফিসার ইনচার্জ মেহেদী রাসেল জানান,নাসিমার লাশ ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরার মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। প্রাথমিক জিঙ্গাসাবাদের জন্য ৩ জনকে আটক করা হয়েছে।