ট্রেনে তরুণী ধর্ষণের অভিযোগে যুবক আটক

September 9, 2020 11:13 am
Spread the love

নিউজ ডেক্সঃ

চট্টগ্রাম থেকে হবিগঞ্জ আসার পথে আন্তঃনগর পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনে এক তরুণীকে (৩০) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত যুবক সাঈদ আরিফকে (২৯) আটক করেছে পুলিশ। এছাড়া ওই তরুণীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ভুক্তভোগী তরুণী বানিয়াচং উপজেলার জাতুকর্ণ পাড়া এলাকার জনৈক ব্যক্তির মেয়ে। আটককৃত যুবকের বাড়ি ফেনী জেলার ছাগলনাইয়া উপজেলায়। অভিযুক্ত যুবক চট্টগ্রাম বিএসআরএম স্ট্রিল কোম্পানীর ট্যাকনিশিয়ান ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

জানা যায়- দীর্ঘ ৫ বছর পূর্বে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে দুজনের পরিচয় হয়। এরপর তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। মঙ্গলবার সকালে ওই তরুণী চট্টগ্রাম থেকে হবিগঞ্জের উদ্দেশে আন্তঃনগর পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনে উঠেন। বিষয়টি ওই তরুণী পূর্বেই প্রেমিক সাঈদ আরিফকে জানিয়ে রাখেন। এসময় আরিফ তরুণীকে না জানিয়েই ফেনী থেকে শায়েস্তাগঞ্জ ষ্টেশনের টিকেট কেটে রাখেন। মঙ্গলবার দুপুরের দিকে ট্রেনটি ফেনী ষ্টেশনে আসলে আরিফ ওই ট্রেনে উঠেন। এসময় তরুণীকে ফুসলিয়ে পাশ্ববর্তী কেবিনে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে আরিফ। এক পর্যায়ে ওই তরুণী অসুস্থ হয়ে পড়লে আরিফ পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু ওই তরুণী আরিফকে পালাতে বাধা দেন। এসময় তরুণীর অসুস্থতার সুযোগ নিয়ে আবারও ধর্ষণ করেন আরিফ। পরে ট্রেনটি শায়েস্তাগঞ্জ জংশনে আসামাত্রই ওই তরুণী চিৎকার করলে স্থানীয় লোকজন কেবিন থেকে ওই তরুণীকে উদ্ধার করে এবং আরিফকে আটক করে। পরে তরুণীকে অসুস্থ অবস্থায় হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এদিকে, ঘটনার খবর পেয়ে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) উৎসব কর্মকার হাসপাতালে পৌঁছে আরিফকে জনতার কাছ থেকে থানা হেফাজতে নিয়ে যান। তবে রাত ১টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত এ ব্যাপারে কোন মামলা দায়ের হয়নি।

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুক আলী বলেন, ৫ বছর আগে সামাজিকযোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তাদের পরিচয় হয়। এরপর থেকে তাদের প্রেম চলে। গতকাল ট্রেনে ওই তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে বিষয়টি কতটুকু সত্য তা এখনও বলা যাচ্ছে না।

তিনি জানান, ভুক্তভোগী তরুণীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত আরিফকে আটক করা হয়েছে। তবে তরুণীর স্বজনরা এখনও না আসায় কোন মামলা দায়ের হয়নি। মামলা দায়ের করলে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।