পার্বতীপুরে বিয়ের প্রলোভনে দৌহিক সম্পর্ক স্হাপন ও ফেসবুকে অশ্লীল ছবি প্রকাশ॥ মামলা দায়ের॥ গ্রেপ্তার-১

October 13, 2020 4:23 pm
Spread the love

এম এ আলম বাবলু, পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ

দিনাজপুরের পার্বতীপুরে এক মুসলিম কিশোরীকে নিজেকে মুসলিম পরিচয় দিয়ে বিয়ের প্রলোভনে দৌহিক সম্পর্ক স্হাপন ও ফেসবুকে অশ্লীল ছবি প্রকাশের অভিযোগে রেলওয়ে থানায় দায়েরকৃত মামলায় পুলিশ বিষ্ণু গোপাল মহন্ত ওরফে বাঁধন রাজ (১৯) নামক এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে। আজ মঙ্গলবার সকালে গ্রেপ্তারকৃত যুবককে দিনাজপুর জেলা আদালতে পাঠানো হয়েছে৷

জানা গেছে , পার্বতীপুর শহরের রেলওয়ে সাহেবপাড়া এলাকার বিশ্বজিত কুমার মহন্ত ও জয়শ্রী রানীর পুত্র বিষ্ণু গোপাল মোহন্ত (১৯) ওরফে বাঁধন রাজ শহরের রেলওয়ে বাবুপাড়া এলাকার এক মুসলিম কিশোরীকে ফেসবুক বন্ধু বানিয়ে এবং নিজেকে মুসলিম পরিচয়ে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে দৌহিক সম্পর্ক স্হাপন করে৷ এভাবে একাধীক বার দৌহিক সম্পর্ক স্হাপনের পর কিশোরী তার আসল পরিচয় জানতে পারে এবং তাকে ধর্মান্তরিত হয়ে কিশোরীকে বিয়ে করার কথা বললে গত ৯/১০/২০২০ তারিখে বাঁধন রাজ পূর্বে কৌশলে ধারনকৃত কিশোরীর অশ্নীল ছবি ফেসবুকে প্রকাশ করে৷ এ ব্যাপারে কিশোরীর মাতা খতেজা বেগম গতকাল সোমবার রাতে পার্বতীপুর রেলওয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পার্বতীপুর রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ এমদাদুল হক গতকাল সোমরার রাতেই অভিযান চালিয়ে বিষ্ণু গোপাল মোহন্ত ওরফে বাঁধন রাজকে গ্রেপ্তার করে৷ তাদের গ্রামের বাড়ী রংপুর জেলার বদরগঞ্জ উপজেলার গুপিনাথপুর (কামারপাড়া) হলেও বাঁধনেরা দীর্ঘদিন ধরে পার্বতীপুর রেলওয়ে শহরের সাহেবপাড়ার টিসি/৮১৩ নম্বর বাসায় বসবাস করছে৷ সে পলিটেকনিক্যাল কলেজের ছাত্র এরং কিশোরী চলতি সালে এস এস সি পাশ করেছে৷

পার্বতীপুর রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ এমদাদুল হক গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সোমবার রাতেই এ ব্যাপারে পার্বতীপুর রেলওয়ে থানায় ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন অাইন ও ২০১৮ সালের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে (মামলা নম্বর-২ তারিখ-১২.১০২০২০)৷