ভোজ্য তেলে নতুন দাম নির্ধারণঃ সয়াবিন ৯০, পাম তেল ৮০ টাকা

October 22, 2020 5:02 pm
Spread the love

নিউজ ডেক্সঃ

নতুন দাম অনুসারে এখন থেকে মিলগেটে খোলা সয়াবিন তেল ৯০ টাকা ও পাম তেল ৮০ টাকা দরে বিক্রি করা হবে। তবে তেলের এই দামটি কেজি না লিটারে তা নিয়ে জনমনে বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশন বলছে, এই দামটি হবে কেজিতে। কিন্তু ব্যবসায়ীরা লিটারের বিষয়ে সম্মত হয়েছেন।

দেশের খোলা বাজারে অনেক ক্ষেত্রে ভোজ্যতেল কেজি দরে ক্রয়-বিক্রয় হলেও তরল পদার্থের মাপের একক কিন্তু লিটারে হয়। তবে বাজারের বর্তমান দাম অনুযায়ী কেজি ও লিটারের ক্ষেত্রে প্রায় ৮ টাকার পার্থক্য রয়েছে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে সভা শেষে তিনটি কোম্পানির প্রতিনিধিরা গণমাধ্যমকে বলেন, তারা তেলের দাম লিটারে ৯০ টাকার বিষয়ে আলোচনা করে এসেছেন। অন্যদিকে ট্যারিফ কমিশনের সদস্য শাহ মো. আবু রায়হান আলবেরুণী গণমাধ্যমকে বলেন, তেলের দাম হবে কেজিতে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা লতিফ বকশী গণমাধ্যমকে বলেন, ব্যবসায়ীরা বিদ্যমান দামটি ২ টাকা কমানোর বিষয়ে একমত হয়েছেন। সেটা লিটারে হতে পারে, আবার কেজিতেও হতে পারে।

পুরান ঢাকার পাইকারি ব্যবসায়ী গোলাম মাওলা গণমাধ্যমকে জানান, আজ সেখানে খোলা সয়াবিন তেলের সরবরাহ আদেশ (এসও) লেনদেন হচ্ছে লিটারপ্রতি ৮৪ থেকে ৮৫ টাকার মধ্যে।

গোলাম মাওলা আরও বলেন, সাধারণ মানুষ বোতলের তেল বেশি কেনে। সেখানে কোনো প্রভাব পড়বে না।

গত কয়েক মাসে দেশে ভোজ্যতেলের দাম ব্যাপকহারে বেড়েছে। এ জন্য ব্যবসায়ীরা আন্তর্জাতিক বাজারে মূল্যবৃদ্ধিকেই দায়ী করছিলেন। সরকারি বিপণন সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) হিসাবে, ঢাকার খুচরা বাজারে এখন খোলা সয়াবিন প্রতি লিটার ৯২ থেকে ৯৭ টাকা দরে বিক্রি হয়, যা এক বছর আগের তুলনায় লিটারপ্রতি ১২ থেকে ১৫ টাকা বেশি।

টিসিবির হিসাবে, বাজারে এখন পাম তেলের দাম লিটারপ্রতি ৮২ থেকে ৮৪ টাকা। এক বছর আগে যা ৫৮ থেকে ৬৫ টাকার মধ্যে ছিল।