পার্বতীপুরে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত ॥ দিপ্তী রানী দাস নামে এক কলেজ ছাত্রী গ্রেপ্তার

October 29, 2020 4:09 pm
Spread the love

এম এ আলম বাবলু, পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ

দিনাজপুরের পার্বতীপুরে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে দিপ্তী রানী দাস (১৭) নামের এক কলেজ ছাত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে পার্বতীপুর রেলওয়ে থানা পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার সকালে গ্রেপ্তারকৃত দিপ্তী রানী দাসকে দিনাজপুর জেলা আদালতে পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে, পার্বতীপুর উপজেলা শহরের মোজাফ্ফর নগর মহল্লার অধিবাসী হার্ডওয়্যার ব্যবসায়ী দিলীপ কুমার দাস ও অনিকা দাসের কন্যা কলেজ ছাত্রী দিপ্তী রানী দাস ফেসবুকে ধর্মীয় অনুভূতিকে আঘাত হেনে কোরআন শরীফ অবমাননা করায় স্থানীয় ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা বুধবার রাতে পার্বতীপুর শহরে বিক্ষোভ মিছিল করে। ঘটনার প্রেক্ষিতে পার্বতীপুর মডেল থানার এস আই (নিঃ) মীর শহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে পার্বতীপুর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলা নং- ৩৫, তারিখঃ ২৮/১০/২০২০ইং। ধারা ২০১৮ সালের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন এর ২৫/২৮/৩১। ঘটনা আঁচ করতে পেরে বুধবার রাতে দিপ্তী রানী দাস ছদ্ম বেশে সুকৌশলে নীল সাগর এক্সপ্রেস ট্রেনে ঢাকার উদ্দেশ্যে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা কালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পার্বতীপুর রেলওয়ে থানার ওসি মোঃ এমদাদুল হক অভিযান চালিয়ে পার্বতীপুর রেলওয়ে জংশনের ১ নম্বর প্লাটফর্মে দন্ডায়মান ৭৬৬ নং ঢাকাগামী আন্তঃনগর নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনের একটি বগি থেকে রাত ৯ টা ৪৫ মিনিটে দিপ্তী রানী দাসকে গ্রেপ্তার করে। একই দিন রাতে রেলওয়ে থানা পুলিশ গ্রেপ্তারকৃত দিপ্তী রানী দাসকে পার্বতীপুর মডেল থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে পার্বতীপুর মডেল থানার ওসি মোঃ মোকলেছুর রহমান মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন এবং পার্বতীপুর রেলওয়ে থানার ওসি মোঃ এমদাদুল হক দিপ্তী রানীকে গ্রেপ্তারের বিষয়টিও নিশ্চিত করেছেন।