ভারতের বিপক্ষে টানা দুই ম্যাচে রেকর্ড গড়ল অস্ট্রেলিয়া

November 29, 2020 3:15 pm

স্পোর্টস ডেস্কঃ

ভারতের বিপক্ষে টানা দুই ম্যাচে গড়ল সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড। সিরিজ শুরুর আগে ২০০৩ বিশ্বকাপের ফাইনালের ৩৫৯ ছিল ভারতের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার সর্বোচ্চ। প্রথম ওয়ানডেতে সেটি ছাড়িয়ে করে ৬ উইকেটে ৩৭৪ রান। এবার এই রানও পিছনে পড়ে গেল।আগের ম্যাচে ৬২ বলে সেঞ্চুরি করেছিলেন স্মিথ, যা অস্ট্রেলিয়ার হয়ে তৃতীয় দ্রুততম।

সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডেও তিন অঙ্ক ছুঁয়েছেন ৬২ বলে!নিজেদের ইতিহাসে কেবল দ্বিতীয়বারের মতো ফিফটি পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রথম পাঁচ ব্যাটসম্যান। শতরানের জুটিতে স্বাগতিকদের ভিত গড়ে দিয়েছেন ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যারন ফিঞ্চ। শুরুর জুটিতে অগ্রণী ছিলেন ওয়ার্নার, আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান ফিঞ্চ দিয়ে যাচ্ছিলেন সঙ্গ। স্বাগতিক অধিনায়ককে ফিরিয়ে ১৩৮ বলে গড়া ১৪২ রানের জুটি ভাঙেন মোহাম্মদ শামি। ৬৯ বলে ৬ চার ও এক ছক্কায় ফিঞ্চ করেন ৬০। অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানদের মধ্যে কেবল তারই স্ট্রাইক রেট একশর নিচে। ঝুঁকিপূর্ণ দুই রান নেওয়ার চেষ্টায় রান আউট হয়ে থামেন ওয়ার্নার। ৭৭ বলে এই বাঁহাতি ওপেনার তিন ছক্কা ও সাত চারে করেন ৮৩ রান।

কাছাকাছি সময়ে দুই ওপেনারের ফিরে যাওয়ার সুবিধা কাজে লাগাতে পারেনি ভারত। আগের ম্যাচে দ্রুত ফেরা মার্নাস লাবুশেনের সঙ্গে স্মিথের জুটিতেও রান আসতে থাকে দ্রুত। বলে বলে রান করে এগোচ্ছিলেন লাবুশেন, স্মিথ ছিলেন আগ্রাসী।ক্রিজে গিয়েই ঝড় তোলেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। তার শেষের খুনে ব্যাটিংয়েই চারশ রানের কাছাকাছি যায় অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ। ৬১ বলে পাঁচ চারে ৭০ রান করা লাবুশেনকে ফিরিয়ে ঝড়ের বেগে এগোনো জুটি ভাঙেন জাসিপ্রত বুমরাহ।৩৮ বলে ফিফটি স্পর্শ করেন স্মিথ, ৪৬ বলে লাবুশেন। ৬২ বলে সেঞ্চুরি ছুঁয়ে ফিরে যান স্মিথ। ভাঙে ৯৫ বল স্থায়ী ১৩৬ রানের জুটি। স্মিথের ৬৪ বলে খেলা ১০৪ রানের ইনিংসে ১৪টি চারের পাশে দুটি ছক্কা।

২৯ বলে চারটি করে ছক্কা ও চারে ৬৩ রানে অপরাজিত থাকেন ম্যাক্সওয়েল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

অস্ট্রেলিয়া: ৫০ ওভারে ৩৮৯/৪ (ওয়ার্নার ৮৩, ফিঞ্চ ৬০, স্মিথ ১০৪, লাবুশেন ৭০, ম্যাক্সওয়েল ৬৩*; হেনরিকস ২*; শামি ৯-০-৭৩-১, বুমরাহ ১০-১-৭৯-১, শাইনি ৭-০-৭০-০, চেহেল ৯-০-৭১-০, জাদেজা ১০-০-৬০-০, আগারওয়াল ১-০-১০-০, পান্ডিয়া ৪-০-২৪-১)