মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

February 11, 2021 11:55 am

ডেস্ক রিপোর্ট:

সম্পদ আটকে দেওয়াসহ মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। বুধবার দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এমন ঘোষণা দিয়েছেন।

জান্তা সরকারকে ক্ষমতা ছাড়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, অং সান সু চি ও উইন মিন্টসহ আটক রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের অবিলম্বে ছেড়ে দিতে আজ মিয়ানমারের সেনাবাহিনীকে আবারও আহ্বান জানাচ্ছি। ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি এমন খবর দিয়েছে।

সামরিক বাহিনীকে অবশ্যই ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়াতে হবে বলে মন্তব্য করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে ১০০ কোটি ডলারের তহবিলে জেনারেলরা যাতে হাত দিতে না পারেন, তার প্রশাসন সেই ব্যবস্থা নিচ্ছে।

এ সময়ে শিগগিরই নতুন নিষেধাজ্ঞা আসছে বলেও হুশিয়ারি দেন এই ডেমোক্র্যটিক প্রেসিডেন্ট।

বাইডেন বলেন, অভ্যুত্থানে জড়িত সামরিক নেতা, তাদের ব্যবসায়িক স্বার্থ ও পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে আমি একটি নির্বাহী আদেশে অনুমোদন দিয়েছি।

চলতি সপ্তাহে প্রথম দফার নিষেধাজ্ঞার আওতায় কাদের নিয়ে আসা হবে, তা নির্ধারণ করবে তার প্রশাসন। তবে সুশীল সমাজ ও মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলোকে দেওয়া সহায়তা বন্ধ করবেন না বলে অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন তিনি।

অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতার নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার সরকারগুলোকে সহায়তা না করতে মার্কিন আইনে বারণ আছে। যদিও মিয়ানমারে সব মার্কিন সহায়তা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বিতরণ করা হয়।

তবে রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর গণহত্যার অভিযোগে মিয়ানমারের শীর্ষ জেনারেল মিন অং হ্লাইংয়ের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে মার্কিন ভ্রমণ ও অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ রয়েছে।