“অনায়াসে মুক্তি”

February 21, 2021 12:59 pm

আলমগীর হোসেন

 

তোমাকে কখনো বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবেনা,
মাথা নত করতে হবেনা আদালতের কাছে,
তুমি নিশ্চিন্ত থাকো, আমার কোনো স্বাক্ষী নেই।
যে সম্পর্কের কোনো স্বাক্ষর , স্বাক্ষী থাকেনা,
থাকেনা কারো প্রতি অন্তঃস্থলের দায়বদ্ধতা,
সেখানে রসের বিপরীতে খরা থাকে সারা বর্ষায়।
আমি কাগজে কলমে কোনো স্বাক্ষর চাইনা,
কোনো মানুষ স্বাক্ষী না থাকুক,
শুধু আমার অঙ্গ-প্রত্যঙ্গগুলো বললেই হবে-
দুজনের মাঝে সময়ের লেনাদেনা হয়েছিল শুধু।
চোখ জোড়া প্রকাশ করে দিক বিরামহীন-
দুজনের প্রণয় কাহিনীর সকল ভিডিও চিত্র,
অধর নিঃসৃত বাণী হোক পবিত্র ভালোবাসার,
ভগ্ন হৃদয় গাইতে থাকুক আহত সুরের গান,
তাহলেই আমার জয় হবে শূন্যের সে আদালতে।
তোমার চোখে চোখ পড়াটাই বুঝি ভূল ছিল আমার।
সে চোখ তোমার এখন আরো হয়েছে বেশি উজ্জ্বল,
প্রখর দ্যুতিতে পুড়ে গিয়েছে, যা আছে সব।
যা হয়েছে, তা নিয়ে ভাবাটাই নিরেট বোকামী!
আমি মেনে নিয়েছি নিষ্টুর এ প্রতিদান।
জীবনের স্রোতে পাওয়ার আশায়, করিনি কিছু কভূ;
আজও তোমাকে মুক্তি দিলাম অভিনয় থেকে,
স্বাক্ষী থাকুক আশেপাশে যা ছিল সব,
শুধুমাত্র বিবেকহীন, দুঃসহ মানুষ ব্যতিরেকে।