ঢাকা-জলপাইগুড়ি রুটে ট্রেন চলাচল শুরু ২৬ মার্চ

February 25, 2021 6:32 pm

নিউজ ডেক্স:

বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের আরো নতুন একটি রেলপথ যুক্ত হতে যাচ্ছে। আগামী ২৬ মার্চ বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের এনজেপি (নিউ জলপাইগুড়ি) থেকে বাংলাদেশের ঢাকার মধ্যে এই রেল পরিষেবা চালু হতে যাচ্ছে।

আপাতত সপ্তাহে দুই দিন সোমবার এবং বৃহস্পতিবার এই ট্রেনটি ভারতের এনজেপি স্টেশন থেকে ছাড়বে। অন্যদিকে সপ্তাহের প্রতি মঙ্গলবার ও বুধবার ট্রেনটি ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট স্টেশন থেকে ছাড়বে। ৯ ঘন্টার এই রেলপথ থাকবে ননস্টপ। তবে ট্রেনটির নামকরন এবং ভাড়া এখনও ঠিক হয়নি বলে জানা গেছে। উল্লেখ্য, গত বছরের ডিসেম্বর মাসে ভারত ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং শেখ হাসিনার ভার্চুয়াল বৈঠকে এই রেলপথ চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঘোষণা করেন, এই রেলপথ দিয়েই ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উত্তরবঙ্গের সঙ্গে প্রতিবেশী রাষ্ট্র বাংলাদেশের মেলবন্ধন ঘটবে। এই রেলপথ চালু করা নিয়ে গত মঙ্গলবার ভারত ও বাংলাদেশের রেলকর্তাদের মধ্যে বৈঠক হয়েছে।

বুধবার বাংলাদেশের পাকসের ডিআরএম মহম্মদ সহিদুল ইসলাম এবং ভারতের কাটিহারের ডিআরএম রবীন্দ্রর কুমার ভার্মার মধ্যে বৈঠক হয়। সেই বৈঠকের পর তারা জানান, মূলত পর্যটন শিল্পকে সামনে রেখেই এই রেলপথ চালু করা হচ্ছে। প্রাথমিকভাবে দুই দেশ থেকে সপ্তাহে দুই দিন করে এই ট্রেন পরিষেবা পাওয়া যাবে।

বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে আগামী ২৬ মার্চ পশ্চিমবঙ্গের এনজেপি স্টেশন থেকে দুপুর ২ টা নাগাদ এই ট্রেনটি বাংলাদেশের উদেশ্যে যাত্রা শুরু করবে। ভারত ও বাংলাদেশ দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী ভার্চুয়ালি এই নয়া রেল পরিষেবার উদ্বোধন করবেন।

এই ট্রেনটিতে ৬ টি স্লিপার কোচের পাশাপাশি ২ টি চেয়ারকোচ থাকবে। পুরো ট্রেনটিতে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কোচ থাকবে। এদিকে এই ট্রেন চালুর খবর শুনে খুশি ভারতের পর্যটন ব্যাবসায়ীরা। তারা মনে করছেন, এই ট্রেনের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক পর্যটকের সংখ্যা বাড়বে।

উল্লেখ্য, আর আগে কলকাতা থেকে ঢাকা পর্যন্ত মৈত্রী এক্সপ্রেস এবং কলকাতা থেকে খুলনা পর্যন্ত বন্ধন এক্সপ্রেস চালু হয়। এবারের উত্তরের রেলের প্রবেশ দ্বার এনজেপি থেকে ঢাকা চালু হয়ে চলেছে এই নয়া রেল পরিষেবা।