বরগুনায় প্রেমিকার পরিবারের মারধর খেয়ে যুবকের আত্নহত্যা

March 6, 2021 11:22 am

নিউজ ডেক্সঃ

বরগুনার তালতলী উপজেলায় মতি হাওলাদার (২৫) নামে এক যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

শনিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বরগুনা সদর হাতপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে তালতলী থানা পুলিশ।

এর আগে শুক্রবার (৫ মার্চ) সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার নিশানবাড়ীয়া ইউনিয়নের তেঁতুলবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মতি হাওলাদার তেঁতুলবাড়িয়া গ্রামের মৃত মজিদ হাওলাদারের ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার নিশানবাড়ীয়া ইউনিয়নের তেঁতুলবাড়িয়া গ্রামের হারুন শিকদারের মেয়ে ময়ূরীর সঙ্গে কয়েক মাস ধরে একই গ্রামের মতি হাওলাদারের প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। গত কয়েকদিন আগে মতির এক আত্মীয় ময়ূরীর বাড়িতে বিয়ের প্রস্তাব দিলে তার বাবা হারুন শিকদার প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন।

এদিকে শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ময়ূরীর বাড়ির সামনে ঘোরাঘুরি করছিল মতি। এসময় কথা কাটাকাটি হয় ময়ূরীর বাবা, মা ও ভাইদের সঙ্গে। একপর্যায়ে তারা মতিকে এলোপাতাড়ি মারধর করে। পরে সন্ধ্যা ৭টার দিকে ওই এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা শহিদ খান নদীর পাড়ে মাছ ধরতে গেলে একটি গাছের সঙ্গে মতিকে ঝুলতে দেখে স্থানীয়দের জানায়।

খবর পেয়ে শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে তালতলী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার মরদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনার পর থেকেই হারুন শিকদারের পরিবার পলাতক রয়েছে।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান মিয়া জানান, মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য বরগুনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত কেউই থানায় কোনো অভিযোগ করেননি।