বোয়ালমারীতে সংখ্যালঘু গৃহবধূকে উত্ত্যক্ত করায় মেম্বার প্রার্থীর বিরুদ্ধে অভিযোগ

March 17, 2021 5:07 pm

নাজমুল হাসান নিরব, ফরিদপুর প্রতিনিধি:

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের এক গৃহবধূকে বিভিন্ন সময় কু-প্রস্তাব দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে এক মেম্বার পদপ্রার্থীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নারীর স্বামী মঙ্গলবার (১৬ /০৩/২০২১) রাতে বোয়ালমারী থানায় লিখিত অভিযোগ করলেও বুধবার দুপুরে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে আপোষ মীমাংসার চেষ্টা চলছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

থানায় দেয়া লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ঘোষপুর ইউনিয়নের লংকারচর গ্রামের মো. হাফিজুর মোল্যার ছেলে রাজীব মোল্যা (৩০) একই গ্রামের এক দরিদ্র কৃষকের স্ত্রী (২৫)কে বিভিন্ন সময় কু-প্রস্তাব দিত। রাজীব মোল্যা ঘোষপুর ইউনিয়ন পরিষদের সম্ভাব্য মেম্বার পদপ্রার্থী। মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় রাজীব মোল্যা ওই কৃষকের বাড়িতে গেলে তার সাথে রাজীবের বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে রাজীব মোল্যা ওই কৃষককে কিল-ঘুষি মেরে আহত করে এবং তার স্ত্রীর গলায় থাকা বারো আনা ওজনের স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। এ সময় রাজীব মোল্যা ওই নারীর স্বামীকে জীবননাশের হুমকি দেয়।

অভিযুক্ত রাজীব মোল্যা বলেন, আমি ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার পদে নির্বাচন করব। এটা আমার বিরুদ্ধে বিরোধীদের ষড়যন্ত্রের অংশ।

এ ব্যাপারে বিষয়টি জানতে মোবাইলে ভূক্তভোগী নারীকে ফোন দেয়া হলে ‘বিষয়টির মীমাংসা হচ্ছে’ বলে ফোনের সংযোগ কেটে দেন। এরপর একাধিকবার ফোন দিলেও ফোন রিসিভ করেননি।

এই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বোয়ালমারী থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক মো. ওয়াহিদ ইসলাম বলেন, ‘ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। ছেলেটা ওই বাড়িতে আসা-যাওয়া করে। আসা-যাওয়া করে এটা নিয়ে স্বামীর সাথে গোলমাল হয়েছে।’

এ ব্যাপারে বোয়ালমারী থানার অফিসার ইন চার্জ মোহাম্মদ নুরুল আলম অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, ‘বিষয়টি তদন্ত করার জন্য একজন এসআইকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।