‘বিনা অনুমতিতে রোড শো করার অপরাধে’ ভিনেত্রী শ্রাবন্তীর বিরুদ্ধে মামলা

April 10, 2021 9:40 am

বিনোদন ডেক্সঃ

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে ‘বিনা অনুমতিতে রোড শো করার অপরাধে’ বিজেপির প্রার্থী জনপ্রিয় টালিউড অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা করেছে কলকাতা পুলিশ।

এ ছাড়া শ্রাবন্তীর পাশাপাশি বেহালার বিজেপির আরও কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধেও একই ধারায় মামলা করা হয়েছে।

তবে, আগামীকাল রোববার বেহালায় চতুর্থ দফা ভোটের আগে মামলা নিয়ে বিচলিত নন বলে জানান শ্রাবন্তী।

পশ্চিমবঙ্গে চতুর্থ দফা ভোটের ঠিক আগে আগে মিঠুন চক্রবর্তীর রোড শো বাতিল করা নিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার দিনভর ধুন্ধুমার চলেছে বেহালায়। ঘটনার জেরে দলীয় কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে পর্ণশ্রী থানা ঘেরাও করেন বেহালা পশ্চিমের বিজেপি প্রার্থী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। এমনকী পুলিশের সঙ্গে বচসাতেও জড়ান।

ভোটের আগে রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছিল বেহালা পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্র। অভিযোগ রয়েছে, এরপর সেখান থেকে বেরিয়ে পুলিশের অনুমতি ছাড়াই বিজেপি কর্মীদের নিয়ে শ্রাবন্তী রোড শো করেন। ফলস্বরূপ এবার আইনি বিপাকে পড়তে হলো পদ্ম শিবিরের এই তারকা প্রার্থীকে। শ্রাবন্তীর বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা করেছে পুলিশ।

পুলিশের অভিযোগ, অনুমতি ছাড়াই বেহালায় রোড শো করেছেন বিজেপি প্রার্থী। সে পরিপ্রেক্ষিতেই শ্রাবন্তীসহ আরও কয়েকজন বিজেপি কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

এ ছাড়া শ্রাবন্তীর বিরুদ্ধে পুলিশের কাজে বাধা এবং অবৈধ জমায়েতেরও অভিযোগ উঠেছে। নির্বাচনি প্রক্রিয়ার ৪৮ ঘণ্টা আগে স্বপ্রণোদিত প্রতিবেদন তলব করেছে নির্বাচন কমিশন। সংশ্লিষ্ট প্রতিবেদন এরই মধ্যে জমাও পড়েছে বলে জানিয়েছে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

রাজনীতির ময়দানে অভিষিক্ত হয়েই কেন্দ্রে ক্ষমতাসীর বিজেপির কাছ থেকে নির্বাচনি টিকেট পেয়েছেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়।

গতকাল থানা ঘেরাওয়ের সময় শ্রাবন্তী অভিযোগ তুলেছিলেন, “পুলিশ থানার ভেতর লুকিয়ে ফোনে কথা বলছে। এক ঘণ্টা ধরে ঠাঁয় দাঁড়িয়ে থাকার পরও ওসি আসেননি একবারের জন্যও। পুলিশ ইচ্ছে করে শেষমূহূর্তে আমাদের ব়্যালি করতে দিচ্ছে না। কেন আমাদের অনুমতি দেওয়া হলো না তার জবাব চাই। মিঠুনদা আমাকে নিজে ফোন করে বলেছেন যে, ‘তুই জানবি কেন আমার প্রচার বাতিল করা হলো, কারণটা কী?’”

এদিকে, কলকাতায় বিজেপির নির্বাচনি প্রচারে যোগ দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগ আনেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এ নিয়ে নির্বাচন কমিশনের শোকজের জবাব দেওয়ার আহ্বান জানান অমিত শাহ। অন্যদিকে, গত শুক্রবার পূর্ব বর্ধমানে ভোটপ্রচারে গিয়ে তৃণমূলনেত্রী মমতার দাবি, তাঁকে খুন করার চক্রান্ত করেছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতারা।