আগ্রাসন না থামালে ইসরায়েলকে জাহান্নামে পরিণত করা হবে-কাসেম ব্রিগেড

May 11, 2021 6:34 pm

আন্তর্জাতিক ডেক্সঃ

ইসরায়েলের সেনাবাহিনী ও ফিলিস্তিনি সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের মধ্যে মঙ্গলবারও ব্যাপক গোলাগুলি হয়েছে। গত সোমবার থেকে ইসরায়েল অভিমুখে দুই শতাধিক রকেট নিক্ষেপ করেছে হামাস। মঙ্গলবার ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর মুখপাত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের বিমান হামলায় নয় শিশুসহ অন্তত ২৫ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ১০৬ জন।

তবে দখলদারদের আগ্রাসনের মুখে চুপ নেই ফিলিস্তিনি যোদ্ধারা। তারাও রকেট ছুড়ে পাল্টা জবাব দিচ্ছে ইসরায়েলকে।

সোমবার থেকে এ পর্যন্ত ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে দুই শতাধিক রকেট নিক্ষেপ করা হয়েছে। তবে এগুলোর বেশিরভাগই আইরন ডোম মিসাইল সিস্টেম প্রতিরোধ করেছে বলে দাবি করেছেন ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর মুখপাত্র জোনাথন কনরিকাস।

ফিলিস্তিনিদের ছোড়া রকেটের আঘাতে অন্তত ছয় ইসরায়েলি আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন এ কর্মকর্তা।

তিনি বলেছেন, পাল্টা জবাবে ইসরায়েল গাজা উপত্যকায় ফিলিস্তিনি স্থাপনা লক্ষ্য করে অন্তত ১৩০টি বিমান হামলা চালিয়েছে। এতে হামাসের ১৫ কমান্ডার নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছেন ইসরায়েলি মুখপাত্র।

তবে মঙ্গলবারও ফিলিস্তিনি ভূমি থেকে ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে রকেট হামলা অব্যাহত রয়েছে। হামাসের সামরিক উইং কাসেম ব্রিগেড জানিয়েছে, পূর্ব জেরুজালেমের শেখ জাররাহ এলাকা থেকে ফিলিস্তিনিদের উচ্ছেদের চেষ্টা এবং পবিত্র আল-আকসা মসজিদে ইসরায়েলি তাণ্ডবের প্রতিবাদে এসব হামলা চালানো হচ্ছে।

এর আগে, কাসেম ব্রিগেড শপথ করে ঘোষণা দেয়, আগ্রাসন না থামালে ইসরায়েলের দক্ষিণাঞ্চলীয় আশকেলন শহরকে ‘জাহান্নাম’ বানিয়ে দেবে তারা।

ইসরায়েলিদের উদ্দেশে হামাসের সামরিক উইং থেকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলা হয়, ‘এই বার্তাটি শত্রুদের অবশ্যই ভালোভাবে বুঝতে হবে: তোমরা সাড়া দিলে আমরা সাড়া দেব, তোমরা এগোলে আমরাও এগোব।’

বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, হামাসের ছোড়া রকেটের আঘাতে ইসরায়েলের বেশ কিছু স্থাপনা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর মধ্যে আশকেলন শহরে একটি অ্যাপার্টমেন্ট এবং বেইত নেকোফা এলাকায় একটি বাড়ি ধ্বংস হয়ে গেছে।

সূত্র: এএফপি, ডন