লেবানন প্রবাসী বাংলাদেশী যাদের পাসপোর্ট নেই দেশে ফিরতে বিশেষ সুযোগ!

May 22, 2021 2:38 pm

ওয়াসীম আকরাম, লেবানন থেকেঃ-

এবার দেশে ফেরার সুযোগ পেতে যাচ্ছে পাসপোর্টের নম্বর বিহীন লেবানন প্রবাসীরা। বাংলাদেশ দূতাবাসের বিশেষ সহযোগিতায় এই সুযোগ পেতে যাচ্ছে প্রবাসীরা। এতে করে পাসপোর্ট সমস্যায় দীর্ঘ বছর ধরে লেবাননে আটকে পরা প্রবাসীরা দেশে ফিরতে পারবেন। এসকল প্রবাসীরা আগামী ২০ জুন থেকে ২৫ জুন পর্যন্ত জন্ম নিবন্ধন অথবা জাতীয় পরিচয় পত্র জমা দিয়ে দূতাবাসে নাম নিবন্ধন করতে পারবে।

২১ মে শুক্রবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এমনটি জানান বাংলাদেশ দূতাবাস।

দূতাবাসের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, লেবাননে বসবাসরত স্বেচ্ছায় দেশে ফিরতে আগ্রহী কিন্তু পাসপোর্ট নম্বর না থাকার ফলে পূর্বের বিভিন্ন কর্মসূচীর মাধ্যমে দেশে ফিরতে পারেননি, তাদের দেশে ফেরার ব্যবস্থা করার লক্ষে দূতাবাস দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টা করে আসছিল। দূতাবাসের দীর্ঘ প্রচেষ্টার ফলে সম্প্রতি লেবানন জেনারেল সিকিউরিটি পাসপোর্ট নম্বর বিহীন প্রবাসী বাংলাদেশী কর্মীদেরকে দেশে ফেরার জন্য জরিমানা বাবদ ৬ লাখ ৫০ হাজার লেবানিজ লিরা জমা প্রদান সাপেক্ষে বিশেষ সুযোগ প্রদানে সম্মত হয়েছে।

দেশে ফিরতে ইচ্ছুক এসকল কর্মীরা আগামী ২০ জুন হতে ২৫ জুন পর্যন্ত বৈরুত রফিক হারিরি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সংলগ্ন আনসার স্টেডিয়ামে সকাল ১০ ঘটিকা হতে বেলা ৩ ঘটিকা পর্যন্ত নাম নিবন্ধন করতে পারবেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে। তবে নাম নিবন্ধন করতে জন্ম নিবন্ধন অথবা জাতীয় পরিচয় পত্রের কপি, পাসপোর্ট সাইজের ৪ কপি ছবি ও জরিমানার অর্থসহ দূতাবাসে আবেদন ফরম পূরণ করে জমা দিতে বলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত লেবাননে বাংলাদেশ দূতাবাস স্হাপনের আগে এবং পরে কয়েক দফা শুধু নিজেদের নাম নিবন্ধন করে যেতে পারলেও দীর্ঘ প্রায় ৩/৪ বছর এমন সুযোগ ছিলনা। এর আগে তৎকালীন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড.দিপুমনি,কর্নেল ফারুক, নমিতা হাওলাদার সহ বিভিন্ন মন্ত্রী পরিষদের ব্যক্তিবর্গ লেবানন আসার পর দূতাবাসের সভায় যাদের কোন কাগজপত্র নেই তাদেরকে দেশে ফেরত নিতে প্রবাসীদের পক্ষ থেকে স্মারকলিপি প্রদান করেন লেবানন বাংলাদেশ শ্রমিক ইউনিয়ন।
এছাড়াও বিভিন্ন ভারচুয়াল আলোচনায় সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীদের উপস্থিতিতে এক থেকে ১৫/২০ বছরের অধিক সময় এখানে বসবাসকারী পাসপোর্ট বিহীন প্রবাসীদেরকে ফিরে নেয়ার দাবী জানিয়ে এসেছিলেন। দূতাবাসের সহযোগিতায় দেশে ফিরতে এমন সুযোগ দেয়ার জন্য ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান প্রবাসীরা।