সংবিধানের ওপর গণভোট চলছে থাইল্যান্ডে

August 7, 2016 8:07 am

আন্তর্জাতিক ডেক্সঃ

থাইল্যান্ডে জান্তা প্রণীত সংবিধানের ওপর গণভোট চলছে। রবিবার স্থানীয় সময় সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়। বিবিসির অনলাইন ভার্সনে এ খবর প্রকাশ করা হয়।

২০১৪ সালে এক সামরিক অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত সরকারের পতনের পর এই প্রথমবারের মতো দেশটির জনগণ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাচ্ছে। তবে গণভোট উপলক্ষে স্বাধীন ও নিরপেক্ষ প্রচারণা এবং উন্মুক্ত বিতর্ক নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এদিকে বিরোধীরা সতর্ক করে বলেছে, সংবিধানটি সামরিক সরকারের ক্ষমতা চিরস্থায়ী করবে।

থাইল্যান্ডে প্রায় এক দশক ধরে রাজনৈতিক অস্থিরতা বিরাজ করছে। দেশটির ক্ষমতাসীনদের শক্তি প্রদর্শন বেড়েই চলেছে এবং একসময় দেশটিতে গণতান্ত্রিক অগ্রযাত্রার যে উজ্জ্বলতা ছিল, তা ম্লান হতে হতে একেবারে শেষ হয়ে গেছে।

সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, নতুন এই সংবিধানে রাজনৈতিক দুর্নীতি সংকুচিত হবে এবং সাম্প্রতিক বছরগুলোতে দেশের প্রতিটি ক্ষেত্রে যে অস্থিরতা দেখা দিয়েছিল তার অবসান ঘটবে।

কিন্তু সমালোচকরা বলছেন, এই সংবিধানের মাধ্যমে বেসামরিক রাজনীতিবিদদের নিষ্ক্রিয় করে দেশের সর্বস্তরে এলিটদের শক্তি বৃদ্ধি করার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

থাইল্যান্ডে ১৯৩২ সালে দেশ শাসনে সম্রাটের প্রত্যক্ষ হস্তক্ষেপ ও রাজতন্ত্রের অবসানের পর দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক অস্থিরতার এ সময়ে সামরিক বাহিনী সাফল্যের সঙ্গে ১২ বার ক্ষমতা দখল করে।

স্থানীয় সময় রবিবার রাত নয়টার দিকে নির্বাচনের প্রাথমিক ফল ঘোষণা করা হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তিনদিন পর ভোটের চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করা হবে। জান্তা প্রণীত সর্বশেষ সংবিধানটি পাশ হলে এটি হবে দেশটির ২০তম সংবিধান। সূত্র: বিবিসি ও এএফপি

Please follow and like us:

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*