দুই মন্ত্রীর বিরুদ্ধে দেয়া রায়ই প্রমাণ করে বিচারবিভাগ স্বাধীন: হাছান

মার্চ ২৯, ২০১৬ ৫:৩৪ সকাল

দুই মন্ত্রীর বিরুদ্ধে দেয়া বিচার বিভাগের রায়ই প্রমাণ করে বিচার বিভাগ স্বাধীন বলে জানিয়েছেন, আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

এ সরকার জবর দখলের সরকার বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি (হাছান মাহমুদ) বলেন, আমি তাকে প্রশ্ন করতে চাই, এ সরকার জবর দখলের সরকার হলে আওয়ামী লীগের এই দুই জাদরেল মন্ত্রীকে কিভাবে বিচারের আওতায় আনলো?

সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে ন্যাশনাল স্টুডেন্টস পার্টি (ভাসানী) আয়োজিত মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কঠোর সমালোচনা করে বলেন, ‘বিচার বিভাগ স্বাধীনভাবে কাজ করে বলেই মুক্তিযোদ্ধা ও খাদ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে আজকে আদালত রায় দিয়েছে।’
 

সাম্প্রতিক সময়ের বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিবের তারেক রহমান নিয়ে সংবাদ সম্মেলনের সামালোচনা করে তিনি বলেন, ‘ফখরুল সাহেব বলছেন, তাদের নেতার (তারেক রহমান) বিরুদ্ধে ইন্টারপোলে কোনো ওয়ারেন্ট বের হয়নি। তবে আমি তাকে বলতে চাই, তিনি এখন দুই দিকে ঝুলে গেছেন। কারণ সবার পদ ঘোষণা করা হলেও তার পদ এখনো ঘোষণা করা হয়নি। তাই তিনি এখন তার নেতা তার নেতা করছেন।’

বিএনপির চেয়ারপারসনের জাতীয় স্মৃতিসোধ যাওয়া প্রসঙ্গে সাবেক এ মন্ত্রী বলেন, ‘খালেদা জিয়া ঐ স্থানে গিয়ে স্থানটিকে অপবিত্র করেছেন। কারণ যিনি শহীদের সংখ্যা নিয়ে প্রশ্ন তুলেন, তার আগে জাতির কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত। কিন্তু তিনি তা করেননি।’

এ সময় তিনি আদালত অবমাননার জন্য খালেদা জিয়ার বিচার হওয়া উচিত বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সরকারকে আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আদালতের বিরুদ্ধে যারা হরতাল ডাকে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। যারা রায়ের বিরুদ্ধে হরতাল ডাকে তাদের কেও বিচারের মুখোমুখি করতে হবে।’

তিনি আরো বলেন, পাঁচ জানুয়ারির নির্বাচনের সময় যারা পেট্রোল বোমা হামলা করে শত শত মায়ের বুক খালি করেছে তারা মানবতা বিরোধী অপরাধ করেছে। তাই আমি সরকারকে আহ্বান জানাবো এদের বিরুদ্ধে বিশেষ ট্রাইবুনাল গঠন করে ঐ মানবতা বিরোধী অপরাধের বিচার করতে হবে।

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে মহাচোর আখ্যা দিয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বাংলাদেশে আলী বাবা মহাচোরের পরে যদি কেউ থাকে সে হচ্ছে তারেক রহমান। কারণ তিনি হাওয়া ভবন তৈরি করে বাংলাদেশকে পাঁচ পাঁচবার দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন বানিয়েছে।’

সংগঠনের আহ্বায়ক রুবেল আহমেদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য দেন, তৃণমূল ন্যাপ ভাসানীর কো-চেয়ারম্যান পরস ভাসানী, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. শাহ আলম, সংগঠনের মহাসচিব মনোয়ার চৌধুরী মেরিন প্রমুখ

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*