চলে গেলেন চলচ্চিত্র পরিচালক খোকন

April 5, 2016 6:23 am

চলে গেলেন খ্যাতিমান চলচ্চিত্র পরিচালক শহীদুল ইসলাম খোকন। আজ সোমবার সকাল ৮টা ১৫ মিনিটে রাজধানীর উত্তরার একটি হাসপাতালে তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি…রাজিউন)। গীতিকার ও সাংবাদিক কবির বকুল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আজ বাদ জোহর এফডিসিতে শহীদুল ইসলাম খোকনের জানাজা হবে। তাকে শ্রদ্ধা জানাবেন চলচ্চিত্র শিল্পী, নির্মাতা ও কলাকুশলীরা।

শহীদুল ইসলাম খোকনের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতি, শিল্পী সমিতি এবং বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি।

মুখগহ্বরের মোটর নিউরো ডিজিসে (এএলএস) আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি। এই গুণী নির্মাতার উন্নত চিকিৎসার জন্য সরকারও এগিয়ে আসে। তাকে ২০১৪ সালে যুক্তরাষ্ট্রে উন্নত চিকিৎসার জন্য নেয়া হলে নিউইয়র্কের বেলভিউ হাসপাতালের চিকিৎসকেরা জানিয়ে দেন, এ রোগের নিরাময় সম্ভব নয়।

এর পর তাকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়। তখন থেকেই ধানমণ্ডি ও উত্তরার বিভিন্ন হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছিল। বাংলাদেশি চলচ্চিত্রের অন্যতম গুণী ও মেধাবী নির্মাতা হিসেবে সব মহলের স্বীকৃতি পেয়েছেন শহীদুল ইসলাম খোকন । অভিনয়ও করেছেন অনেকগুলো ছবিতে তবে চলচ্চিত্র পরিচালনাতেই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করতেন।

অভিনেতা ও প্রযোজক মাসুদ পারভেজ সোহেল রানার সহকারী হিসেবে তার চলচ্চিত্রে যাত্রা শুরু হয়। তবে নিজের পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্রের নাম ‘রক্তের বন্দী’। তবে প্রথম ব্যবসা সফল চলচ্চিত্রের নাম ‘লড়াকু’। মার্শাল আর্ট জানা দুই অভিনেতা রুবেল ও ড্যানি সিডাককে নিয়ে তৈরি করা এ চলচ্চিত্রটি দর্শকমহলে ভীষণ জনপ্রিয় হয়।

বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান অভিনেতা হুমায়ুন ফরীদিরও চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় শহীদুল ইসলাম খোকনের হাত ধরে।

তার পরিচালিত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রগুলো হচ্ছে ‘ঘাতক’, ‘পালাবি কোথায়’, ‘লাল সবুজ’, ‘ম্যাডাম ফুলি’, ‘ভণ্ড’, ‘লড়াকু’ প্রভৃতি।

Please follow and like us:

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*