বরিশাল বিমানবন্দরে যাত্রীর পিস্তল গুলিতে মেডিকেল ছাত্রীসহ দুইজন আহত

মে ১৮, ২০১৭ ১২:১৬ দুপুর

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

বরিশাল বিমানবন্দরে যাত্রীর পিস্তল জমা দেওয়ার সময় আকস্মিক গুলি বের হয়ে এক মেডিকেল ছাত্রীসহ দুইজন আহত হবার খবর পাওয়া গেছে। গতকাল মঙ্গলবার ইউএস বাংলার ঢাকাগামী ১৭২ নম্বর ফ্লাইট উড্ডয়নের আগ মুহুর্তে এমন ঘটনা ঘটে। পিস্তলটি জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল হাসানাত আবদুল্লাহর এমপির মেজ ছেলে মঈন আবদুল্লাহর বলে জানা গেছে।

নগরীর বিমানবন্দর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. নুরুল ইসলাম বলেন, বিমানের যাত্রী মঈন আবদুল্লাহ বিমানবন্দরের চেকইনে পিস্তল জমা দেওয়ার সময় এক্সিডেন্টাল ফায়ার হয়েছে। এসময় ঢাকার একটি মেডিকেল কলেজের ছাত্রী ও বরিশাল ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের সুপার ডা. ইকবাল রহমানের মেয়ে সামিহা ইকবাল এবং এক বিমানকর্মী সামান্য আহত হয়েছেন।

এ ব্যাপারে বরিশাল ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের সুপার ডা. ইকবাল রহমান বলেন, ‘এক যাত্রীর পিস্তল থেকে গুলি বের হয়ে স্পিøন্টারের আঘাতে তার মেয়ে সামিহার বাম পায়ে একটু রক্ত বের হয়েছিল। তবে এটি একটি সামান্য ঘটনা।’

বিমানবন্দরে ইউএস বাংলার ইনচার্জ সাইফুর রহমান জানান, মঈন আবদুল্লাহ, তার মা এবং ছোট ভাই আশিক আবদুল্লাহসহ পাঁচজন বিমানযোগে ঢাকার উদ্দেশ্যে বরিশাল বিমান বন্দরে আসেন। এসময় মঈন আবদুল্লাহ তার পিস্তল জমা দেওয়ার আগে পরীক্ষা করার সময় এক রাউন্ড গুলি বের হয়ে যায়। পিস্তল জমা দিয়ে তিনি ফ্লাইটে ওঠেন এবং ঢাকা এয়ারপোর্ট থেকে তার পিস্তল নিয়ে যান।

মঈন আবদুল্লাহর ঘনিষ্টজন মহানগর আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক নীরব হোসেন টুটুল বলেন, ‘মঈন আব্দুল্লাহর হাতে থাকতে পিস্তলের গুলি বের হয়নি। বিমানকর্মীর হাতে জমা দেওয়ার পর পিস্তল থেকে গুলি বের হয়েছে।’