ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ

সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৭ ১২:০০ সকাল

নিউজ ডেক্সঃ

ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচে কোন কোন দল মুখোমুখি হয়েছিল? এমন প্রশ্নে অনেকের মনে উঁকি দিতে পারে ক্রিকেটের সবচেয়ে পুরনো দ্বৈরথ অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের নাম। যারা ১৮৭৭ সালে প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ খেলেছিল। কিন্তু না। অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ডেরও ৩৩ বছর আগে (১৮৪৪ সালে) প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সেই ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড কিংবা ওয়েস্ট ইন্ডিজের মতো ক্রিকেটের পুরনো কোনো দল মুখোমুখি হয়নি। মুখোমুখি হয়েছিল ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের প্রদেশ কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্র। ১৮৪৪ সালের ২৪ থেকে ২৫ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হয়েছিল দুদিনের ম্যাচটি। যদিও বৃষ্টির কারণে ম্যাচের আয়ুস্কাল আরো একদিন বেড়ে হয়েছিল ২৪-২৬ সেপ্টেম্বর। পরবর্তীতে এই ম্যাচটিকে প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচের স্বীকৃতি দেওয়া হয়। কানাডা-যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার সেই ম্যাচটি হয়ে যায় ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ।

Image result for ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ

লো স্কোরিং সেই ম্যাচে যুক্তরাষ্ট্রকে ২৩ রানে হারিয়েছিল কানাডা।

নিউ ইয়র্কের সেন্ট জর্জেস ক্রিকেট ক্লাবের ব্লুমিংডেল পার্কে ২৪ সেপ্টেম্বর সকালে টস জিতে যুক্তরাষ্ট্র। তারা কানাডাকে ব্যাট করতে আমন্ত্রণ জানায়। কানাডা প্রথম দিনে ব্যাট করতে নেমে ৮২ রানে অলআউট হয়। বল হাতে যুক্তরাষ্ট্রের ডেভিড উয়িঙ্কওর্থ ও ফ্রেড ফ্রেঞ্চ ৪টি করে উইকেট নেন।

জবাবে যুক্তরাষ্ট্র ৯ উইকেট হারিয়ে ৬১ রান তুলে প্রথম দিন শেষ করে। খারাপ আবহাওয়ার কারণে দ্বিতীয় দিন আর খেলা হয়নি। বাধ্য হয়ে ম্যাচটি গড়ায় তৃতীয় দিনে। সেদিন দলীয় সংগ্রহে আরো ৩ রান যোগ করে ৬৪ রানে অলআউট হয়ে যায় যুক্তরাষ্ট্র। বল হাতে কানাডার স্যাম রাইট ৫টি উইকেট নেন।

১৮ রানের লিড নিয়ে কানাডা তাদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামে। এবার তারা ৬৩ রানে অলআউট হয়ে যায়। এই ইনিংসে যুক্তরাষ্ট্রের জর্জ শার্প একাই ৬ উইকেট নেন। তাতে যুক্তরাষ্ট্রের সামনে জয়ের লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায় ৮২ রান। সেই রান তাড়া করতে নেমে ৫৮ রানে ৯ উইকেট হারিয়ে বসে যুক্তরাষ্ট্র। তাদের দশম ব্যাটসম্যান মাঠে নামতে ব্যর্থ হন। তাতে ২৩ রানে জয় পায় কানাডা। এই ইনিংসে কানাডার হেনরি গ্রুম ৫ উইকেট নেন। যুক্তরাষ্ট্রের অপর চারটি উইকেট নেন আগের ইনিংসে পাঁচ উইকেট নেওয়া কানাডার স্যাম রাইট। দুই ইনিংস মিলিয়ে ৯ উইকেট শিকার করেন স্যাম।

Image result for ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ

 

এই ম্যাচটি দেখার জন্য ২০ হাজার দর্শক মাঠে উপস্থিত হয়েছিল। এই ম্যাচকে কেন্দ্র করে বাজিকরদের পকেটও বেশ গরম হয়েছিল। বলা হয়ে থাকে ১ লাখ ২০ হাজার ডলারের (বর্তমানে বাংলাদেশি টাকায় ৯৮ রাখ ৬১ হাজার) বেটিং হয়েছিল এই ম্যাচ নিয়ে।

ঊনবিংশ শতাব্দীর মাঝামাঝিতে যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলার নাম ছিল ক্রিকেট। সে সময় বোস্টন, ওয়াশিংটন ডিসি, ফিলাডেলফিয়া ও নিউ ইয়র্ক সিটিতে প্রচুর ক্রিকেট ক্লাব প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। কানাডার বিপক্ষের এই ম্যাচকে সামনে রেখে যুক্তরাষ্ট্র ক্লাবগুলো থেকে সেরা সেরা খেলোয়াড়দের নিয়ে এসেছিল। কানাডাও তাদের স্থানীয় ক্লাবগুলোর সেরা সেরা খেলোয়াড়দের নিয়ে নিউ ইয়র্কে এসেছিল।

:: সংক্ষিপ্ত স্কোর ::

।। কানাডা ।।
প্রথম ইনিংস : ৮২/১০
দ্বিতীয় ইনিংস : ৬৩/১০

।। যুক্তরাষ্ট্র ।।
প্রথম ইনিংস : ৬৪/১০
দ্বিতীয় ইনিংস : ৫৮/৯।

ফল : কানাডা ২৩ রানে জয়ী।

বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা আইসিসির সহযোগী সদস্য। যুক্তরাষ্ট্রে বর্তমানে ১ হাজারেরও বেশি নিবন্ধিত ক্রিকেট ক্লাব রয়েছে। যারা বছরে ৪৯টিরও বেশি লিগ আয়োজন করে। ২০০৪ সালে আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে খেলেছিল যুক্তরাষ্ট্র। সেবার অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নেমে দুটিতেই হেরেছিল। এছাড়া ২০১৪ সাল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র সব ধরণের টুর্নামেন্টের বাছাইপর্ব খেলেছে।

কানাডার বর্তমানে ৯টি প্রাদেশিক ক্রিকেট বোর্ড রয়েছে। ২০১১ বিশ্বকাপে খেলেছিল তারা। এ ছাড়া ১৯৭৯, ২০০৩ ও ২০০৭ বিশ্বকাপেও খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছিল প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ খেলা কানাডা।