একাত্তরের এই দিনে লালমনিরহাট হানাদার মুক্ত হয়

December 6, 2017 9:31 am

নিউজ ডেক্সঃ

আজ লালমনিরহাট পাক হানাদার মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে লালমনিরহাট হানাদার মুক্ত হয়। ভারতীয় মিত্রবাহিনী ও বীরমুক্তিযোদ্ধারা লালমনিরহাট শহরকে পাক হানাদার মুক্ত করতে তিনদিক থেকে ঘিরে ফেলে আক্রমণ পরিচালনা করে। মিত্রবাহিনী ও বীরমুক্তিযোদ্ধাদের যৌথ আক্রমণে পাকিস্তান হানাদার বাহিনী বিপর্যয়ের মুখে ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। তাদের পরাজয় নিশ্চিত জেনে লালমনিরহাট রেলওয়ে স্টেশন থেকে পাক হানাদার বাহিনী, রাজাকার, আলবদর, আলসাম্স ও তাদের দোসর অবাঙ্গালীরা দুটি স্পেশাল ট্রেনযোগে রংপুর ও সৈয়দপুরে পালিয়ে যায়। লালমনিরহাট জেলা পাক হানাদার মুক্ত হয়।
.
এর আগে ৫ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় লালমনিরহাট রেলওয়ে রিক্সাস্ট্যান্ডে পাক হানাদার বাহিনী ও রাজাকারদের যোগ সাজসে গণহত্যা চালানো হয়। এ সময় মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের রেলওয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারী, বুদ্ধিজীবীসহ ৩৭৩জন নিরীহ মানুষকে গুলি করে হত্যা করে পাক হানাদার বাহিনী। পরে গণহত্যায় নিহত লোকদের রেল স্টেশনের দক্ষিণ পাশে একটি ডোবায় ফেলে দেয়া হয়। বর্তমানে সেখানে গড়ে উঠেছে একটি গণকবর।

লালমনিরহাট হানাদার মুক্ত দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপনের লক্ষ্যে সরকারী ও বেসরকারীভাবে পালিত হবে নানা কর্মসূচি। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- জেলা প্রশাসনের আয়োজনে শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সকালে একটি শোভাযাত্রা বের হয়ে শহর প্রদক্ষিণ কারবে। শোভাযাত্রায় বীরমুক্তিযোদ্ধারা, জেলা ও পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তা, রাজনৈতিক দলের নেতা, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, ছাত্রছাত্রী, বেসরকারী সংস্থা, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাসহ সর্বস্তরের মানুষ অংশগ্রহণ করবে।