ড. জাকির নায়েকের সাথে উগ্রপন্থার সংযোগ খুঁজে দেখছে বাংলাদেশ

জুলাই ৯, ২০১৬ ১:১৫ দুপুর

নিউজ ডেক্সঃ

গুলশানে হামলার ঘটনায় ‘বিতর্কিত’ ইসলামি চিন্তাবিদ ড. জাকির নায়েকের উগ্রপন্থার সংযোগ খুঁজে দেখছে বাংলাদেশ। তার ‘উস্কানিমূলক’ বক্তব্য তদন্তের মাধ্যমে তার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপেরও চিন্তা করা হচ্ছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দু এই দাবি করেছে। তবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গণমাধ্যমকে বলেছেন, জাকির নায়েক বাংলাদেশে খুবই জনপ্রিয়। তদন্ত ছাড়া এমন একজন জনপ্রিয় ব্যক্তির ক্ষেত্রে হঠাৎ করেই কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া যায় না।

উল্লেখ্য, গুলশান হামলাকারীদের মধ্যে অন্তত দুইজন জাকির নায়েককে অনুসরণ করত বলে অভিযোগ ওঠার পর এ নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়। ভারত এরইমধ্যে এ ঘ্টনার তদন্ত শুরু করেছে। পিস টিভি বন্ধে ক্যাবল অপারেটরদের নির্দেশ দেয়ার কথাও জানিয়েছে তারা। পাশাপাশি জাকির নায়েকের বক্তব্য এবং অর্থের উৎসও তদন্তের আওতায় নিয়েছে তারা। তার বিরুদ্ধে মামলা করার সিদ্ধান্তও নিয়েছে ভারত।

পিস টিভির ওপর নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এটা সময়সাপেক্ষ ও তদন্তের ব্যাপার। জাকির নায়েক বাংলাদেশে খুবই জনপ্রিয় ব্যক্তি। এরকম ব্যক্তির ক্ষেত্রে হঠাৎ করেই কোনও সিদ্ধান্ত নেয়া যায় না।

তবে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুকে উদ্ধৃত করে ‘দ্য হিন্দু’ দাবি করেছে, জাকির নায়েকের বক্তব্য পর্যালোচনা করে পিস টিভি নিষিদ্ধের ব্যাপারে চিন্তাভাবনা করছে বাংলাদেশ।

উল্লেখ্য, পিস টিভির লাইসেন্স দুবাইভিত্তিক। বাংলাদেশে তার লাইসেন্স বাতিলের কোনো সুযোগ নেই। তবে সরকারের নির্দেশনা পেলে ক্যাবল অপারেটররা পিস টিভি দেখানো বন্ধ করে দিতে পারে।

বাংলাদেশের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে ক্যাবল অপারেটরস্ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (কোয়াব)-এর সভাপতি মীর হোসেন আক্তারকে উদ্ধৃত করে ‘দ্য হিন্দু’র খবরে বলা হয়, আমি নিজেও পিস টিভি দেখতাম, তবে গুলশান হামলার পর মনে হলো আমার মতো অনেক মানুষই এই টেলিভিশন দেখে। আমরা দেশব্যাপী এই টিভির সম্প্রচার বন্ধ করে দিতে চাই। তবে সরকারের কোনো নির্দেশনা ছাড়া তা সম্ভব নয়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*