সাড়ে তিন বছরেও আলোর মুখ দেখেনি বরিশাল ২শ শয্যার শিশু হাসপাতাল

March 27, 2018 11:38 am

নিউজ ডেক্সঃ

ভিত্তি স্থাপন হলেও গত সাড়ে তিন বছরে নির্মাণ কাজের আশানুরূপ ও দৃশ্যমান অগ্রগতি হয়নি বরিশাল দু’শো শয্যার শিশু হাসপাতালের। ফলে উন্নত চিকিৎসা থেকে বরিশাল অঞ্চলের শিশুরা বঞ্চিত হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন অভিভাবকরা। গণপূর্ত বিভাগ বলছে, মাটি পরীক্ষার ভিত্তিতে নকশা পরিবর্তন করায় বিলম্বিত হয়েছে নির্মাণ কাজ।

স্বাধীনতার ৪৩ বছর পর বরিশাল নগরীর আমানতগঞ্জে দু’শো শয্যার একটি শিশু হাসপাতালের ভিত্তি স্থাপন করা হয় ২০১৪ সালের ১৮ই আগষ্ট। এরপর কেটে গেছে সাড়ে তিন বছর। কিন্তু হাসপাতাল নির্মাণের আশানুরূপ কোন অগ্রগতি হয়নি। এদিকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শিশুদের জন্য বেড রয়েছে মাত্র ৩৫টি। সেখানে ভর্তি থাকে দৈনিক ৩শ থেকে ৪শ শিশু। ফলে উন্নত চিকিৎসা থেকে এ অঞ্চলের শিশুরা বঞ্চিত হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

শেবাচিম’র শিশু বিভাগ বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডাঃ অসীম কুমার সাহা বলেন, ‘তীব্র বেড সংকটের কারণে শিশুদের কাঙ্ক্ষিত সেবা দেয়া বিঘ্নিত হচ্ছে। একারণে বরিশাল শিশু হাসপাতালের নির্মাণকাজ দ্রুত সম্পন্ন করা জরুরি।’

এ অবস্থায় নাগরিক পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক এনায়েত হোসেন চৌধুরী দ্রুত শিশু হাসপাতাল নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘শিশু হাসপাতাল ছাড়া এই শিশুদের স্বাস্থ্য সেবা দেয়া যাবে না। এই কারণে আমাদের জোর দাবি অবিলম্বে শিশু হাসপাতালের পূর্ণাঙ্গতা দেয়া হোক।’

এদিকে গণপূর্ত বিভাগ বলছে মাটি পরীক্ষার ভিত্তিতে নকশা পরিবর্তন করায় বিলম্বিত হয়েছে শিশু হাসপাতালের নির্মাণ কাজ।

গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী রিপন কুমার রায় বলেন, ‘আমরা নকশা হাতে পেয়েছি। পাইল নির্মাণের কাজ চলছে। সবকিছু স্বাভাবিক থাকলে আশা করছি, আগামী দুই বছরের মধ্যে কাজটি সম্পন্ন করা সম্ভব হবে।’

শিশু হাসপাতাল প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ২৪ কোটি টাকা। এখানে ১০তলা ফাউন্ডেশনে প্রথম করা হবে ৪তলা পর্যন্ত।

Please follow and like us: